সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

Satyajit Ray Biography in Bengali & English (সত্যজিৎ রায়ের জীবন কাহিনী)

0

Satyajit Ray Biography

 

Satyajit Ray was a famous Bengali Indian film director of the 20th Century and also a screenwriter. His contribution to Bengali films and Bengali literature is immense. His newly created detective character ‘Feluda’ and ‘Professor Shanku’ got special fame. (Satyajit Ray Biography in Bengali & English)

Childhood Life:

Satyajit Ray was born on 2nd May 1921 in a famous artistic family of Calcutta City. His nick name was Manik. His grandfather’s name was Sri Upendrakishor Roy Chowdhury and his father was Sukumar Roy. As a writer, philosopher and publisher,  Upendrakishore Roy Chowdhury was well-known and his son Sukumar Ray was one of the best writers of child literature. When Satyajit Ray was only 3 years old, his father Sukumar Ray was died. Then his mother Suprava Devi fosterage him.

Satyajit Ray Childhood

Student Life:

He was a 19th Century renowned filmmaker, screenwriter, music director and writer. His ancestor was in the village of Masua. He studied at Presidency College, Calcutta and Rabindra Bharati University under Santiniketan, Calcutta. He also received an honorary degree from Oxford University.

Working Life:

Satyajit Ray’s career started as a commercial painter. Before his study in Visva-Bharati, he returned to Calcutta and started working as a junior visualist in British advertising agency ‘DJ Kimare’ for just 80 rupees. After being approached by French filmmaker Jay Renoir, and after watching an Italian film ‘Ladri di Bichiklatte’, he was interested in film making.

His versatile talent was released as a film maker. In 1947, he and some of his companions formed ‘Calcutta Film Society’. His first film isPather Panchali. He won 11 international awards for the film. These three films, ‘Pather Panchali’, ‘Apur Sansar’ and ‘Aparajita’ together are known as ‘Apu Trio’, which are considered to be the best act of their life. At first he used to make films only in Bangla but later he wrote the screenplay in English language.

He wrote a few short stories and novels. His popular fictional detective character ‘Feluda’ and ‘Professor Shanku’ attracted Bengali readers especially. He made two typeface designs, ‘Rey Roman’ and ‘Ray Bijar’, in which ‘Ray Roman’ won the international award.

Satyajit Ray Pather Panchali

Married Life:

In 1949, he got married to his girlfriend Bijoya Das. They have a son named Sandip Roy.

Awards and Honours:

Apart from making films, he has done many works such as music notation, screenplay, filming, art direction, editing, graphic design, list of artists etc. In his career, he has received many national and international awards, among which the famous Oscars found in 1992 proved to be successful in all his career.

He also received 32 National Film Awards, 2 Silver Beer, and 1 Golden Lion Award. In 1992, the highest civilian award from the Indian government was honored with ‘Bharat Ratna’. He also won the Padma Bhushan, Padma Shree, De Lit, Desikamam, Doctorate, Vidyasagar Puraskar, Fellowship and Dada saheb falke. Note that in 2004 he was at the 13th place of the best Bengali list of all time.

Satyajit Ray with Oscar

Living Life:

On April 23, 1992, he died of cardiac arrest.


সত্যজিৎ রায়ের জীবন কাহিনী

(Satyajit Ray Biography in Bengali)

 

সত্যজিৎ রায় ছিলেন বিংশ শতাব্দীর একজন বিখ্যাত বাঙালী ভারতীয় চলচ্চিত্র পরিচালক তথা চিত্রনাট্যকার। বাংলা চলচ্চিত্র ও বাংলা সাহিত্যে তার অবদান অপরিসীম। তার সৃষ্ট গোয়েন্দা চরিত্র ‘ফেলুদা’ ও ‘প্রফেসর শঙ্কু’ বিশেষ খ্যাতি লাভ করে।

 

শৈশবজীবনঃ (Satyajit Ray Biography in Bengali)

১৯২১ সালের ২রা মে কলকাতা শহরের এক বিখ্যাত শিল্পী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন সত্যজিৎ রায়। তার ডাক নাম ছিল মানিক। তার পিতামহের নাম উপেন্দ্রকিশোর রায় চৌধুরি এবং তার পিতা ছিলেন সুকুমার রায়। লেখক, দার্শনিক, প্রকাশক হিসেবে উপেন্দ্রকিশোর রায় চৌধুরির বিশেষ পরিচিত ছিল এবং সুকুমার রায় ছিলেন শিশু সাহিত্যের সেরা লেখকদের মধ্যে একজন। সত্যজিৎ রায়ের যখন মাত্র ৩ বছর বয়স তখনি তার পিতা সুকুমার রায়ের জীবনাবসান হয়। এরপর তার মা সুপ্রভা দেবী তাকে মানুষ করেন।(Satyajit Ray Biography in Bengali)

Satyajit Ray Childhood

ছাত্রজীবনঃ

তিনি উনবিংশ শতাব্দীর একজন খ্যাতনামা চলচ্চিত্র নির্মাতা , চিত্রনাট্যকার, সঙ্গীত পরিচালক এবং লেখক ছিলেন। তার পূর্বপুরুষের ভিটেবাড়ি ছিল বাংলাদেশের মসূয়া গ্রামে। তিনি কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ এবং কলকাতার শান্তিনিকেতনের অন্তর্গত রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করেন। তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকেও সম্মানসূচক ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবনঃ

সত্যজিৎ রায়ের কর্মজীবনের শুরু একজন বানিজ্যিক চিত্রকর হিসেবে শুরু হয়। বিশ্বভারতীতে তার পড়াশোনা শেষ হবার আগেই তিনি কলকাতায় ফিরে এসে ব্রিটিশ বিজ্ঞাপন সংস্থা ‘ডি জে কিমারে’ তে মাত্র ৮০ টাকার বেতনে জুনিয়র ভিজুয়ালাইজার হিসেবে কাজ শুরু করেন। তারপর ফরাসি চলচ্চিত্র নির্মাতা জ রনোয়ারের সান্নিধ্যে আসার পর এবং একটি ইতালীয় চলচ্চিত্র ‘লাদ্রি দি বিচিক্লেত্তে’ দেখার পর চলচ্চিত্র নির্মাণে আগ্রহী হন।

চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে তার বহুমুখী প্রতিভা প্রকাশ পায়। ১৯৪৭ সালে তিনি ও তার কিছু সঙ্গীরা মিলে ‘কলকাতা ফিল্ম সোসাইটি’ নির্মাণ করেন। তার নির্মিত প্রথম চলচ্চিত্র হল ‘পথের পাঁচালী’। এই চলচ্চিত্রের জন্য তিনি ১১ টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেন। ‘পথের পাঁচালী’, ‘অপুর সংসার’‘অপরাজিতা’ এই তিনটি চলচ্চিত্র একত্রে ‘অপু ত্রয়ী’ নামে পরিচিত এটি তার জীবনের সেরা কর্ম বলে মনে করা হয়। প্রথমে তিনি শুধুমাত্র বাংলা ভাষাতেই চলচ্চিত্র নির্মাণ করতেন কিন্তু পরবর্তীকালে ইংরেজি ভাষাতেও তিনি চিত্রনাট্য লেখেন।

তিনি কয়েকটি ছোটো গল্প ও উপন্যাস লিখেছেন। তার নির্মিত জনপ্রিয় কাল্পনিক গোয়েন্দা চরিত্র ‘ফেলুদা’ এবং ‘প্রফেসর শঙ্কু’ বাঙালী পাঠকদের বিশেষ ভাবে আকর্ষিত করে। তিনি ‘রে রোমান’ ও ‘রে বিজার’ নামক দুটি টাইপফেস নকশা বানান যার মধ্যে ‘রে রোমান’ আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করে।

Satyajit Ray Pather Panchali

বৈবাহিক জীবনঃ

১৯৪৯ সালে তিনি তার বান্ধবী বিজয়া দাসের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের একটি পুত্র সন্তান হয় যার নাম সন্দীপ রায়।

পুরস্কার ও সম্মানঃ

চলচ্চিত্র নির্মাণের পাশাপাশি তিনি সঙ্গীত স্বরলিপি রচনা, চিত্রনাট্য রচনা, চিত্রগ্রহণ, শিল্প নির্দেশনা, সম্পাদনা, গ্রাফিক নকশা,  শিল্পীদের নামের তালিকা প্রভৃতি নানা কাজ করেছেন। তার কর্মজীবনে তিনি অনেক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্ত হয়েছেন যার মধ্যে বিখ্যাত ১৯৯২ সালে পাওয়া ‘অস্কার’ যা তার সমস্ত কর্মজীবনকে সার্থক করে। এছাড়াও তিনি ৩২ টি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ২ টি সিলভার বিয়ার, ১ টি গোল্ডেন লায়ন পুরস্কার প্রাপ্ত হন। ১৯৯২ সালে ভারত সরকার থেকে সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘ভারত রত্ন’ দিয়ে সম্মান জানানো হয়। এছাড়াও তিনি ‘পদ্মভূষণ’, ‘পদ্মশ্রী’, ‘ডি লিট’, ‘দেশীকত্তম’, ‘ডক্টরেট’, ‘বিদ্যাসাগর পুরস্কার’, ‘ফেলোশিপ’, ‘দাদাসাহেব ফালকে’ প্রভৃতি পুরস্কার লাভ করেন। উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে তিনি সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালির তালিকার ১৩ তম স্থানে ছিলেন।(Satyajit Ray Biography in Bengali)

Satyajit Ray with Oscar

জীবনাবসানঃ

১৯৯২ সালের ২৩ শে এপ্রিল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু ঘটে।

মন্তব্য
Loading...