হাসির ফোয়ারা (Funny SMS Bangla)- Bangla Jokes

0

Bangla Jokes

 

 

Funny SMS Bangla

 

ছেলে : আমি তোমার মনের ভিতরে একবার ঘুরে আসতে চাই।

মেয়ে : না না, তা হবেনা।

ছেলে : কেনো কেনো?

মেয়ে : তাহলে আমার মনের ভিতরে কে কে আছে তুমি জেনে যাবে।


পরিচারিকার কাছে অপু আর দুর্গা’কে রেখে বেড়াতে গেছেন ওদের বাবা-মা।

পরিচারিকাকে বাবার চেয়ারে বসতে দেখে চেঁচিয়ে উঠল অপু, ‘তুমি আমার বাবার চেয়ারে বসলে কেন?’

পরিচারিকা : বাবা তো এখন বাড়িতে নেই। তা ছাড়া এখানে আমিই সবচেয়ে বড়, সুতরাং আমিই তোমাদের বস।

দুর্গা : তাহলে তুমি মায়ের চেয়ারে বসো।


স্কুলের স্যার পটলা’কে প্রশ্ন করলো,

স্যার : আচ্ছা পটলা, যদি কেও স্কুলের সামনে বোম রেখে যায়, তুমি কি করবে?

পটলা : প্রথমে কিছুক্ষণ দেখবো, তারপর কেউ না নিলে স্টাফ রুমে জমা দিয়ে আসবো।


Bangla Jokes

স্যার(ক্লাসে এসে) : কাল তোমাদের স্কুলের ব্যাচ দেওয়া হবে, প্রত্যেকে ৫০ টাকা করে আনবে।

বিমল(বাড়ি গিয়ে) : মা, কাল স্কুলে ব্যাচ দেবে। সবাই’কে ১০০ টাকা করে নিয়ে যেতে বলেছে।

মা : একটা সামান্য ব্যাচের জন্য ১০০ টাকা? আচ্ছা, তোর বাবা বাড়ি আসলে বলবখুনি।

(বাবা বাড়ি এলে)মা : কি গো  শুনছো, তোমার ছেলের স্কুলে ব্যাচ দেবে বলে সবাই’কে ৫০০ টাকা করে নিয়ে যেতে বলেছে।

বাবা : অ্যা!!


ছেলে : আমি তোমাকে খুব ভালবাসি

মেয়ে : ধুর!

ছেলে : এক মুহূর্ত’ও বাঁচতে পারবনা তোমাকে ছাড়া।

মেয়ে : ধুর!

ছেলে : মরতেও পারি তোমার জন্য।

মেয়ে : ধুর!

ছেলে : একটা সুন্দর সোনার আংটি কিনেছি তোমার জন্য।

মেয়ে : সত্যি?

ছেলে : ধুর!


Bangla Jokes

একটি চিঠি :

প্রিয় অমলবাবু ,

গত শনিবার রাতে খুব বৃষ্টির সময় আমার বাড়ি থেকে ফিরে যাবার জন্যে আমাদের চাকর পাশের বাড়ি থেকে যে ছাতাটি আপনাকে এনে দিয়েছিল সেই ছাতাটি পাশের বাড়ির ভদ্রলোক আজ চাইতে এসেছিলেন। ভদ্রলোক বললেন, ছাতাটি তিনি তাঁর অফিসের বড়বাবুর কাছ থেকে চেয়ে নিয়ে এসেছিলেন, বড়বাবুকে বড়বাবুর ভায়রাভাই খুব চাপ দিচ্ছেন ছাতাটির জন্যে, কারণ বড়বাবুর ভায়রাভাই যে বন্ধুর কাছ থেকে ছাতাটি আনেন সেই বন্ধুর মামা তাঁর ছাতাটি ফেরত চাইছেন। শুনলাম ছাতাটি নাকি মামাবাবুরও নিজের নয়, তাঁর শ্বশুরের।


স্যার : ধরো, তোমার সামনে একটি টাকার বাক্স আর একটি জ্ঞান এর বাক্স রাখা আছে। তুমি কোনটি নেবে?

ছাত্র : টাকার বাক্স।

স্যার : আমি হলে জ্ঞান এর বাক্স নিতাম।

ছাত্র : যার যেটা অভাব, সে তো সেটাই নেবে।


স্বামী টিভি দেখছিল। হঠাৎ চিৎকার করে উঠল, “কবুল বলিস না! কবুল বলিস না! কবুল বলিস না!”

রান্নাঘর থেকে স্ত্রী জিজ্ঞেস করলো, “টিভিতে কী দেখছ?”

স্বামী : আমাদের বিয়ের ভিডিও।


নাড়ুবাবু নতুন টেলিভিশন কিনেছেন। বাড়ি ফিরেই তিনি টেলিভিশনটা এক ড্রাম পানির ভেতর ডুবিয়ে দিলেন। ঘটনা দেখে ছুটে এলেন এক প্রতিবেশী।

প্রতিবেশী : আরে, করছো কী?

নাড়ুবাবু : আর বলবেন না। নতুন টিভি কিনলাম। দোকানদার বলল, রঙিন টিভি! ভাবলাম, ব্যাটা বুঝি আমায় ঠকিয়েছে। তাই জলে ডুবিয়ে দেখছিলাম, রং উঠে যায় কি-না।


১০

Bangla Jokes

স্যার : জলে বাস করে এমন ৪টি প্রাণীর নাম বলো।

ছাত্র : ব্যাঙ

স্যার : বাকি ৩টি?

ছাত্র : ব্যাঙের মা, ব্যাঙের বাবা, আর ব্যাঙের ভাই।


১১

রোগী : ডাক্তারবাবু আমার মুখে অরুচি হইছে, কিচ্ছু খাইতে ভালো লাগতেছেনা।

ডাক্তারবাবু : বুঝলাম। তা সকালে কী খেয়েছেন?

রোগী : আজ্ঞে, ১০খান রুটি আর এক ডজন কলা।

ডাক্তারবাবু : কিছুক্ষণ হাঁ হয়ে রইলেন। তারপর বললেন, ‘এই কম্পাউণ্ডার, একে এমন কিছু ওষুধ দিয়ে দাও যাতে কাঁচা শাক-সবজি খেতে পারে।’


১২

স্ত্রী : এই শোনো; আমি লন্ডন যাচ্ছি, তোমার জন্য কী আনবো?

স্বামী : আমার জন্য একটা ব্রিটিশ মেয়ে নিয়ে এসো।

ফেরার  পর,

স্বামী : কই, আমার গিফট কই?

স্ত্রী : অপেক্ষা করো, ১০মাস ১০দিন পর পেয়ে যাবে।


১৩

মহিলা সেক্রেটারি তার বস কে বললো,

সেক্রেটারি : স্যার আপনার স্ত্রী সবসময় আমাকে সন্দেহের দৃষ্টিতে দেখেন কেন?

বস : কারণ, তোমার আগে সে আমার সেক্রেটারি ছিল তাই।


১৪

ছেলে : জানু, আমি কি তোমার হাত’টা ধরবো?

মেয়ে : না থাক। হাল্কা’ই আছে, আমি বয়ে নিতে পারবো।


১৫

ছাত্র : I Love You ম্যাম

শিক্ষিকা : বেয়াদব ছেলে!!

ছাত্র : না মানে, এটার মানে কী?

শিক্ষিকা : আগে বলবি তো। এটার মানে, “আমি তোমাকে ভালবাসি।”

ছাত্র : ছি ছি, আপনি আমার মাসির মতো।


১৬

Bangla Jokes

স্ত্রী : এতক্ষণ ধরে ওই কাগজটিতে কী দেখছ তুমি?

স্বামী : কই, কিছু না তো!

স্ত্রী : আরে, এ যে দেখি ডাহা মিথ্যে কথা বলছ। তুমি প্রায় চার ঘণ্টা ধরে আমাদের বিয়ের রেজিস্ট্রি পেপার’টা এত খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখছটা কী, শুনি?

স্বামী : না, তেমন কিছু নয়। অনেকক্ষণ ধরে খুঁজেও কেন জানি এটার মেয়াদ ফুরানোর তারিখটা বের করতে পারলাম না।


১৭

গাড়ির মালিক : গাড়ি কেনার সময় আপনারা বলেছিলেন, এক বছরের মধ্যে যা কিছু ভেঙে যাবে কিংবা নষ্ট হয়ে যাবে, তা বদলে দেবেন।

গাড়ি বিক্রেতা : ঠিক বলেছেন।

গাড়ির মালিক : গাড়ি চালাতে গিয়ে আমার নিচের পাঁটির চারটি দাঁত, দুইটা পাঁজরের হাড় ভেঙে গেছে। এখন বদলে দিন।


১৮

Funny SMS Bangla

এক মেয়ে টিকিট না কেটে ট্রেনে উঠেছে।

চেকার : টিকিট দেখান।

মেয়ে : টিকিট দিয়ে কি হবে? আমার চেহারা’ই তো টিকিট।

চেকার : তাহলে জরিমানা দিন।

মেয়ে : কেনো?

চেকার : কারন আপনি উঠেছেন ফার্স্ট ক্লাস’এ, কিন্তু আপনার চেহারা হলো থার্ড ক্লাস এর।


১৯

স্ত্রী : আচ্ছা আমি যদি মরে যাই, তুমি কী করবে?

স্বামী : পাগল হয়ে যাবো।

স্ত্রী : তুমি কি পরে আবার বিয়ে করবে?

স্বামী : পাগল তো সবকিছু’ই করতে পারে, তাইনা?


২০

বহুদিন পর দুই বান্ধবী তাদের স্বামীকে নিয়ে গল্প করছে,

প্রথমজন : আর পারি না, বুঝেছিস! আমার স্বামী সবসময় তাঁর আগের বউয়ের কথা বলতে থাকে।

দ্বিতীয় জন : তাও ভালো! আমার স্বামী তো ভবিষ্যতে তার বউ যে হবে, তাকে নিয়ে কথা বলে।


২১

Bangla Jokes

নকুল আর সহদেব গেছে জঙ্গলে বেড়াতে। হঠাৎ একটি বাঘ আসতে দেখে সহদেব নকুল’কে রেখে দৌড়ে পালিয়ে যায়। নকুল কোনো উপায় না পেয়ে পুরনো গল্পের মতো মরার ভান করে শুয়ে পড়ে।

বাঘটি কাছে এসে রাগে নকুল’কে কষে একটি থাপ্পর দিয়ে বলে,

বাঘ : এই সব ভান ভাল্লুক আসলে করবি।

নকুল বাঘটিকে কষে একটি থাপ্পর মেরে বলল,

নকুল : ভুল তো মানুষেরই হয়। এরজন্য থাপ্পর মারা লাগবে নাকি!


২২

Funny SMS Bangla

শিক্ষক : বায়ুমণ্ডল কাকে বলে?

ছাত্র : বলবো স্যার?

শিক্ষক : বলতেই তো বলছি।

ছাত্র : মণ্ডলপাড়া’র ওপর দিয়ে যে বায়ু বয়ে যায়, তাকে বায়ুমণ্ডল বলে।


২৩

সকাল থেকে স্বামী-স্ত্রী’র মধ্যে ঝগড়া চলছে।

স্বামী স্ত্রী’কে ফোন করে বললো,

স্বামী : আজ রাতের খাবার কী?

স্ত্রী : বিষ আছে বিষ।

স্বামী : ঠিক আছে। তুমি খেয়ে শুয়ে পরো, আমার ফিরতে একটু দেরি হবে আজ।


২৪

স্ত্রী : একটা কথা বলবো মারবা নাতো?

স্বামী : কি কথা?

স্ত্রী : আমি প্রেগন্যান্ট।

স্বামী : এইটা তো খুশির সংবাদ, মারবো কেনো?

স্ত্রী : না মানে,বিয়ের আগে একবার আব্বারে কইছিলাম, কি মারটাই না দিলো!


২৫

শিক্ষক : রাজেশ, তুমি হোম ওয়ার্ক করোনি কেনো?

রাজেশ : স্যার, আমি তো হোস্টেলে থাকি। আপনি হোম ওয়ার্ক করতে বলেছিলেন, হোস্টেল ওয়ার্ক তো করতে বলেননি।


২৬

Funny SMS Bangla

স্ত্রী : আচ্ছা, তুমি সব সময় অফিসে যাওয়ার সময় ব্যাগে করে আমার ছবি নিয়ে যাও কেন?

স্বামী : অফিসে যখন আমি কোনো সমস্যায় পড়ি, তখন তোমার ছবিটি বের করে দেখলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যায়, বুঝলে?

স্ত্রী : তাই নাকি! তাহলে দেখো, তোমার জন্য আমি কতটা সৌভাগ্যের!

স্বামী : হুম, আমার যখন সমস্যা আসে, তখন তোমার ছবি বের করে দেখি আর নিজেকে বলি, তোমার চেয়ে তো বড় কোনো সমস্যা পৃথিবীতে থাকতে পারে না। আর সঙ্গে সঙ্গে ছোট সমস্যাগুলো আর আমার কাছে সমস্যা বলে মনে হয় না।


২৭

রাম : তুই তোর বউর সাথে ঝগড়া করিস?

আলি : হ্যাঁ, করি। তবে প্রতিবার ঝগড়ার শেষে ও এসে হাঁটু গেড়ে আমার সামনে বসে পড়ে।

রাম : বলিস কী! তারপর?

আলি : তারপর মাথা ঝুঁকিয়ে বলে, ‘খাটের তলা থেকে বেরিয়ে আসো। আর মারব না।’


২৮

নববিবাহিতা দম্পতির মাঝে কথা হচ্ছে।

স্ত্রী : যদি বলি আমার উপরের পাটির দাঁতগুলো বাঁধানো, তবে কি তুমি রাগ করবে?

স্বামী : মোটেই না, আমি তবে নিশ্চিন্তে আমার পরচুলা আর কাঠের পা-টা খুলে রাখতে পারব।


২৯

– আমার স্ত্রী যার সঙ্গে পালিয়ে গেছে সে আমার সবচাইতে বড় বন্ধু।

– তাই নাকি? লোকটা কি দেখতে খুবই সুন্দর?

– কী জানি, জীবনে তাকে দেখি নি তো।


৩০

Funny SMS Bangla

বল্টুর মেয়ে বল্টুকে জিজ্ঞাসা করল–

বাবা আমরা যে কাগজে পড়ি
গো পুজা,
গো মাতা,
গো হত্যা,
এই ‘গো’ মানে কি?

বল্টু : গো মানে গরু।

তখনই রান্না ঘর থেকে ডাক এল–ও’গো’ শুনছো?


 

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...