রাশি থেকে কি করে বুঝবেন চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য? জেনে নিন উপায়

0

কোন রাশির মানুষের চরিত্র কেমন? বর্তমান সমাজে মানুষের দৈনন্দিক জীবনে বিজ্ঞানের ভূমিকা সবচাইতে বেশী। এককথায় জুতো সেলাই থেকে চণ্ডীপাঠ সবকিছুতেই বিজ্ঞান আমাদের সহায়ক। তা স্বত্বেও মানুষের বাস্তব বুদ্ধির বাইরে এমন কিছু বিষয় সর্বদা বিরাজ করে চলেছে, যা কোনপ্রকার বৈজ্ঞানিক যুক্তি মেনে চলেনা। একারণে প্রাচীন কাল থেকেই ভারতবর্ষে জ্যোতিষবিদ্যাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়ে আসছে।

জ্যোতিষবিদ্যা অনুযায়ী প্রতিটি মানুষের দৈনন্দিক জীবনে বিভিন্ন গ্রহ, নক্ষত্র এর প্রভাব রয়েছে। আমাদের দৈনন্দিক জীবনযাপন থেকে শুরু করে শিক্ষা, পেশা, উন্নতি, অবনতি, এমনকি চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যও নির্ভর করে এই তত্ত্বের ওপর।

স্কুল, কলেজ, কর্মক্ষেত্র প্রভৃতি বিভিন্ন জায়গায় প্রতিনিয়ত নতুন কিছু  মানুষের সাথে আমাদের আলাপ হয়েই থাকে। এরকম ভাবেই একসময় পরিচিতের সংখ্যা এতই বেড়ে যায় যে সকলকে মনে রাখাও দুষ্কর হয়ে ওঠে। আবার অনেক সময় কিছু পরিচিত ব্যক্তি সাধারণ পরিচিতের তুলনায় একটু বেশিই ঘনিষ্ঠ হয়ে ওঠে। একটু ভেবে দেখুন তো, আপনি কি নিশ্চিত আপনার ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিরা সকলেই যে আপনার শুভাকাঙ্ক্ষী?

সাধারণভাবে বোঝা না গেলেও অনেক সময় এমনই ঘনিষ্ঠ কিছু ব্যক্তিই হয়ে ওঠে মানুষের শত্রু। সেকারণে সবসময় পরিচিত ব্যক্তির স্বভাব-চরিত্র জেনেই ঘনিষ্ঠ আলাপে পা বাড়াতে হয়। বুঝবেন কীভাবে? সেটাই আজ আমাদের আলোচ্য বিষয়।

আবার ধরুন আপনার সাথে কারও বিবাহ স্থির হয়েছে। সেক্ষেত্রে যে মানুষটির সঙ্গে আপনাকে সারাটা জীবন অতিবাহিত করতে হবে, তার বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে কিছুটা জেনে নিলে আপনারই সিদ্ধান্ত গ্রহণে সুবিধা হবে।

পরিবার-পরিজন থেকে শুরু করে বন্ধু-বান্ধব কে কেমন, তা আপনি এক নিমেষেই বুঝে যেতে পারেন তার রাশি থেকে। আসুন জেনে নেওয়া যাক রাশি থেকে চরিত্র বোঝার উপায়।

মেষ রাশির মানুষের চরিত্র

মেষ রাশির মানুষের চরিত্র

প্রথমে আসি মেষ রাশির কথায়। মেষ রাশির মানুষেরা সাধারণত আশাবাদী, সাহসী ও উদ্যমী হয়ে থাকে। তবে এরা কিছুটা স্বেচ্ছাচারীও বটে। স্বাধীনচেতা এবং দায়িত্ব নিতে ভালোবাসেন। সামান্য অনুপ্রেরণা পেলে এরা যেকোনো ঝুঁকিপূর্ণ কাজে সাহসিকতার পরিচয় দেয় এবং কাজ বা কথার সমালোচনা সহ্য করতে পারে না। সহজাতভাবে এরা দয়ালু এবং শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিদের প্রতি ভক্তিযুক্ত হলেও স্পষ্ট কথা বলতে পছন্দ করে। সকলের সঙ্গে সমান ভাবে মিশতে না পারলেও বন্ধুদের প্রতি বিশ্বস্ত হয়ে থাকে। খুব পরিশ্রমি হয়ে থাকে, কায়িক শ্রমের চেয়ে মস্তিষ্কের শ্রমেই বেশি সফলতা পায় বেশী। এদের মতে উন্নতিই আসল, সেকারণে নিজের ক্ষমতায় না হলে পেছনের পথ দিয়ে এগোতেও কুণ্ঠিত হয় না। এই রাশির মানুষেরা সহজে কথার খেলাপ করে না; নিজের ক্ষতি করেও কথা রাখার চেষ্টা করে। তবে মাঝে মাঝে এরা খুব উগ্র প্রকৃতির হয়ে ওঠে। এদের উদ্ভাবনী শক্তি প্রবল এবং সব বিষয়ে নেতৃত্ব করতে পছন্দ করে। তবে মানুষ প্রায়ই এ রাশির মানুষকে ভুল বোঝে।


বৃষ রাশি

বৃষ রাশির মানুষের চরিত্র

এরপর আসি বৃষ রাশির কথায়। বৃষ রাশির মানুষ সহজাতভাবে ধীরস্থির, সহনশীল ও উদার প্রকৃতির এবং ব্যক্তিগতভাবে আত্মনির্ভরশীলতা পছন্দ করে। সকলের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করলেও কখনও কখনও একগুঁয়ে হতে দেখা যায়। এই রাশির ব্যক্তিরা শিল্প, সঙ্গীত ও সাংস্কৃতিক সৌন্দর্যের অনুরাগী হয়ে থাকে। এরা খুব সর্বদা উচ্চ ভাব সম্পন্ন এবং সহজেই অন্যকে আপন করে নেয়। এমনকি বিপরীত লিঙ্গের মন সহজে জয় করতেও ওস্তাদ, তবে একাধিক মানুষের প্রতি আকৃষ্ট হতে পারে। নিজ প্রতিভার গুণে এরা সকলের উপর আধিপত্য বিস্তারে সক্ষম হয়। এই রাশির মানুষের জীবনে জীবনে উত্থান পতন খুব কম। আত্মীয় সজনের জন্য প্রচুর ত্যাগ স্বীকার করতে পারে। কখনও কখনও সিদ্ধান্ত গ্রহণে দীর্ঘ সময় অতিবাহিত করার কারণে বহু সময় অনেক ভাল সুযোগ এরা নষ্ট করে। এরা প্রায়ই তীক্ষ্ণ বুদ্ধি, স্মৃতিশক্তি সম্পন্ন, দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ও ধৈর্যশীল হয়ে থাকে। ধর্মীয় বিষয়ে খুব উৎসাহী হয়ে থাকে। তবে বহু অর্থ, সম্পত্তি পাওয়া সত্ত্বেও বিলাসিতা ও অমিতব্যয়িতা এদের উন্নতির প্রধান অন্তরায়।


মিথুন রাশি

মিথুন রাশির মানুষের চরিত্র

মিথুন রাশির মানুষের মধ্যে খুব পরিমাণে ছেলেমানুষি লক্ষ্য করা যায়। সবসময় কথা দিয়ে এরা সবসময় চারপাশ মুখরিত করে রাখে। এরা খুব রসিকতা প্রিয় এবং এক জায়গায় বেশি সময় ধরে বসে থাকতে পারেনা, তবে এরা খুব চিন্তাশীল স্বভাবের হয়ে থাকে। এদের মধ্যে একই সঙ্গে দ্বিবিধ ভাবের খেলা লক্ষ্য করা যায়। এই ধরুন কখনও নরম, কখনও গরম; আবার ধরুন একই সঙ্গে কাউকে ভালবাসে, আবার ঘৃণাও করে; কখনও কৃপণ তো কখনও আর্থিক ভাবে উদার; কখনও সহজেই বিশ্বাস করে আবার কখনও সন্দেহ করে; কখনও কুটিল, কখনও সরল। জ্ঞানার্জনের প্রতি এদের তীব্র আকর্ষণ থাকে, তবে সময়ে সময়ে মিথ্যা বলার অভ্যাসও থাকে। এরা খুব কাজ পাগল প্রকৃতির হয়ে থাকে, কিন্তু কোন কাজ করবে বা কোন কাজ করবে না তা সব সময় ঠিক করে উঠতে পারে না। প্রয়োজনের চেয়ে একটু বেশিই ভাবুক হয়ে থাকে এরা কখনও কখনও।ব্যবসা, আইন, চিকিৎসা, হিসাব, শিল্প-সাহিত্য, রেস, জুয়া ইত্যাদিতে এরা তিব্র আগ্রহী হয় এবং কিছু সাফল্যও অর্জন করে। এই রাশির মানুষেরা প্রায়ই পেটের রোগ বা বদহজমে ভোগে।


কর্কট রাশি

কর্কট রাশির মানুষের চরিত্র

এই রাশির ব্যক্তিরা সহজাতভাবে কল্পনা প্রিয় এবং ভাবপ্রবণ হলেও প্রবল কর্মঠ হয়ে থাকে। এরা পরিবারকে খুব ভালবাসে, তাছাড়া যথেষ্ট অতিথি পরায়ণও বটে। বেকার ঝঞ্ঝাট পছন্দ করেন না এই রাশির মানুষেরা। এরা বিলাসি অথচ আদর্শবাদী প্রকৃতির হয়। এরা খুব চাপা স্বভাবের এবং স্পর্শকাতর। দিনের চেয়ে রাতের পরিবেশ এদের বেশি প্রিয়। পরনির্ভরতা একদম পছন্দ করে না সব ব্যাপারেই বুঝে চলে। অন্যের আবেগ ও অনুভূতি দ্বারা সহজেই প্রভাবিত হয় এরা। এরা খুব ভ্রমণ বিলাসী হয়। দোষ বলতে এই রাশির মানুষেরা একটু ভীতু এবং সব বিষয়ে খুঁতখুঁতে চঞ্চল প্রকৃতির হয়। জন্মগতভাবেই এদের মধ্যে ব্যাবসায়িক বুদ্ধি থেকে থাকে, সেকারণে চাকরির চেয়ে ব্যবসাতেই এরা বেশি উন্নতি করে। শারীরিকভাবে এরা খুব একটা সুসাস্থ্য‌ের অধিকারি হয়না; হৃদরোগ, পেটের রোগ, মাথার রোগ, যক্ষ্মা, হাঁপানি হওয়ার প্রবণতা থাকে এদের। এরা খুব বেহিসেবি প্রকৃতির হয়ে থাকে।


সিংহ রাশি

সিংহ রাশির মানুষের চরিত্র

সিংহ রাশির মানুষদের দৈহিক সৌন্দর্য অন্যদের তুলনায় বেশী হয়ে থাকে। সাধারণত শান্ত স্বভাবের হলেও রেগে গেলে হিতাহিত জ্ঞানশূন্য হয়ে পরে, তবে এদের হৃদয় সর্বদা ভালোবাসায় পরিপূর্ণ থাকে। এরা একদিকে যেমন জেদি, পরাক্রমশীল, গম্ভীর হয়, অপরদিকে তেমনি উদার এবং স্নেহশীল হয়ে থাকে। দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হওয়ার কারণে সম্পূর্ণ নিজের চেষ্টায় জীবনে উন্নতিলাভ করে। ইঞ্জিনিয়ারিং বা চিকিৎসা বিদ্যায় দ্রুত উন্নতিলাভ করতে পারে। উচ্চ রক্তচাপ, চোখের রোগ, পেটের রোগে ভোগান্তি হয়। এরা স্বভাবত আত্মনির্ভরশীল, বিশ্বস্ত, কর্মঠ এবং যে কোনও কাজে নেতৃত্ব প্রদানে সক্ষম হয়, তবে ঘনঘন মত পাল্টানো এদের উন্নতির পথে অন্তরায় হয়ে দাড়াতে পারে। সোজাসাপ্টা‌ এবং সত্যি কথা বলার কারণে কেউ কেউ সিংহ রাশিকে ভুল বোঝে।


কন্যা রাশির মানুষের চরিত্র

কন্যা রাশির মানুষের চরিত্র

কন্যা রাশির মানুষদের স্বভাব-চরিত্র সহজে বোঝা যায় না। এরা উদ্যমশীল, হাস্যকৌতুক এবং আনন্দ প্রিয় হয়ে থাকে। এদের বন্ধুপ্রীতি অপরিসীম, প্রিয় মানুষের জন্য অকাতরে বহু ত্যাগ স্বীকার করতে পারে। এই রাশির মানুষেরা সবসময় ভালো কাজে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক এবং সহজাত বুদ্ধি ও যুক্তির নিরিখে সিদ্ধান্ত নিতে পছন্দ করে। এরা সকলের জন্য চিন্তা করলেও নিজের স্বার্থটুকু বোঝে, দু’টি পরপর বিপরীত ভাবের জন্য অনেক সময় এদের উন্নতি ব্যাহত হয়। সহজাতভাবে এরা তীক্ষ্ণ স্মৃতিশক্তির অধিকারী হয়ে থাকে। যুক্তি এবং কর্মদক্ষতায় এই রাশির জাতক-জাতিকারা অনন্য হয়। চেষ্টা করলে সঙ্গীতবিদ্যা, গণিতবিদ্যা, আইনবিদ্যা, চিকিৎসা বিজ্ঞান, রসায়ন বিজ্ঞান প্রভৃতি বিষয়ে এরা সফলতা লাভ করতে পারে। এছাড়া ব্যবসা-বাণিজ্যেও উন্নতিলাভ করতে সক্ষম।


তুলা রাশির মানুষের চরিত্র

তুলা রাশির মানুষের চরিত্র

তুলারাশির মানুষেরা স্বভাবত ভোগবিলাস প্রিয়, রোমান্টিক, ভাবপ্রবণ, বিজ্ঞ, রাজনীতি প্রিয় এবং প্রখর অনুমান শক্তিসম্পন্ন হয়ে থাকে। এরা খুব সামঞ্জস্যপূর্ণ ও শৃঙ্খলা পরায়ণ হয়ে থাকে এবং বৈষম্য পছন্দ করে না। সহজেই মানুষকে আপন করে নেওয়ার মতো অসাধারণ গুণ তুলার রয়েছে। এরা সাধারণত নির্জ‌নতাপ্রিয় স্বভাবের হয়ে থাকে। এদের সহিষ্ণুতা ও ধৈর্য যথেষ্ট এবং সৎকর্ম পরায়ণ হয়ে থাকে। এরা খুব বুদ্ধিমান এবং প্রবল বিচার বিশ্লেষণ শক্তি সম্পন্ন হয়ে থাকে। কর্মস্থলে এদের সহযোগী পাওয়া দুস্কর, তবে যে কোনো কাজ অত্যন্ত ধীরে-সুস্থে করতে পছন্দ করে। ধর্মীয় অনুরাগ থাকলেও তা খুব একটা প্রকাশ করতে চায়না। ইচ্ছা করলে এরা ভাল শিল্পী, গায়ক, চিত্রকর, সুরকার, সাহিত্যিক, নৃত্যশিল্পী বা অভিনেতা হতে পারে। পেশাগত দিকে চাকরি অপেক্ষা ব্যবসা এদের পক্ষে বিশেষ ফলপ্রদ। নিজে খেতে এবং অপরকে খাওয়াতে এরা খুব ভালবাসে।


বৃশ্চিক রাশি

বৃশ্চিক রাশির মানুষের চরিত্র

এই রাশির মানুষেরা স্বভাবত গোপনীয়তাপ্রিয় এবং নিজের মত চলতে ভালবাসে। এরা প্রায়ই একগুঁয়ে, স্বেচ্ছাচারি, প্রভুত্বকামী হয়ে থাকে। এমনকি অনেক সময় অহংকারী, দাঙ্গাবাজ ও গুন্ডা প্রকৃতিরও হতে পারে। প্রচুর ভু-সম্পত্তির মালিকানা এদের কাম্য। জীবনে প্রতিষ্ঠা লাভের জন্য এরা ন্যায়-অন্যায় বিচার করেনা কখনও। তবে এদের মধ্যে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য গুণও থাকে; এরা নির্ভীক, আত্মসংযমী ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ স্বভাবের হয়। পাইলট, সামরিক অফিসার, সৈনিক, পুলিশ অফিসার, উচ্চ পদস্থ সরকারি কর্মচারী প্রভৃতি বৃত্তি অবলম্বন করে এরা জীবনে দ্রুত উন্নতি লাভ করতে পারে। তবে হঠাৎ কিছু পাওয়ার আশা করা এদের পক্ষে উচিত নয়, কঠোর পরিশ্রম এবং অধ্যাবসায়েই উন্নতিলাভ সম্ভব। সঙ্গীত, কলাবিদ্যা এবং লেখালেখিতেও অনেক সময় এদের সহজাত দক্ষতা দেখা যায়। এরা বুদ্ধিমান হয়, তবে কখনও কখনও নিজের ভুলে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে পড়তে হতে পারে।


ধনু রাশির মানুষের চরিত্র

ধনু রাশির মানুষের চরিত্র

ধনু রাশির জাতক-জাতিকারা ধর্মীয় অনুরাগী হওয়ার পাশাপাশি বিজ্ঞান ও দর্শ‌নের প্রতিও সমান আগ্রহ রাখে। এরা সৎ, উদার, দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, সত্যপ্রিয়, জ্ঞানি, আদর্শবাদী এবং বাস্তবতার নিরিখে সিদ্ধান্ত নিতে পছন্দ করে। এরা অত্যন্ত আত্মনির্ভরশীল, অপরের অধীনে কাজ করতে পছন্দ করেনা। কখনও কখনও ধর্মীয় বিশ্বাস কর্মক্ষেত্রে বাধা আনতে পারে। বিষয়-সম্পত্তির প্রতি এদের আসক্তি কম থাকে। প্রথম জীবনে নানা বাধা, মানসিক অস্থিরতা, অর্থাভাব থাকলেও কঠোর পরিশ্রম অবস্থা পাল্টে দিতে পারে। এদের অর্থ ভাগ্য খুব ভালো নয়, আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশী হয়। ব্যক্তিজীবনে এরা খুব সততার পরিচয় দেয়। তবে দৃঢ়তা ও স্পষ্টবাদিতার জন্য অনেক সময়ই মতান্তর দেখা যায়, একারণে এদের বন্ধু সংখ্যা একটু কম।


মকর রাশি

মকর রাশির মানুষের চরিত্র

মকর রাশির মানুষেরা স্বভাবত আরামপ্রিয়, ধীরস্থির এবং নিঃসঙ্গ থাকতে ভালবাসে। অবসাদ, বৈরাগ্য, উদাসিনতা, সন্দেহ প্রবণতা এদের চরিত্রের লক্ষণীয় বিষয়। এমনকি বন্ধুরাও সব সময় এদেরকে এড়িয়ে চলতে চেষ্টা করে। এরা সহিষ্ণু, পরিশ্রমী, জেদি, ঈশ্বরবিশ্বাসী ও পরোপকারী হয়। এরা অল্পে সন্তুষ্ট হয়, তবে ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবনে অনেক চড়াই-উতরাই পার হতে হয়। উদাসীনতার কারণে এরা কখনও শ্রমশীল আবার কখনও শ্রম বিমুখ হয়। যেকোনো রহস্যজনক বিষয়ের প্রতি এদের ঝোঁক সবচাইতে বেশী। চেষ্টা করলে বিজ্ঞান, গণিতবিদ্যা, যন্ত্রবিদ্যা, লোহা বা কয়লার ব্যবসা, টেকনিক্যাল কাজ প্রভৃতি এদের জীবনে সফলতা এনে দিতে পারে। এদের স্বাস্থ্য মোটামুটি অবস্থায় থাকে, চেহারায় অকালে বার্ধক্যের ছাপ দেখা যায়, শেষ জীবনে একসাথে একাধিক রোগে ভুগতে হতে পারে। এদের জীবনদৃষ্টি অন্যদের তুলনায় আলাদা।


কুম্ভ রাশির মানুষের চরিত্র

কুম্ভ রাশির মানুষের চরিত্র

মকরের মতো কুম্ভ রাশির মানুষেরাও নিঃসঙ্গ থাকতে ভালবাসে। উদাসীনতা, নৈরাশ্য, মানসিক অস্থিরতা এদের মধ্যে লক্ষ্য করা যায়। গুপ্তবিদ্যায়, গণিত, জ্যোতিষ, বিজ্ঞান, প্রভৃতি বিষয়ে পারদর্শী হয়। কুম্ভ রাশির মানুষেরা ধৈর্যশীল, সতর্ক স্বভাবের হয়ে থাকে। এরা ভাবুক, দার্শনিক প্রকৃতির, প্রচলিত নিয়ম ও শৃঙ্খল ভেঙে নতুন কিছু করার প্রতি এদের প্রবণতা থাকে। ধর্মীয় বিষয়েও এদের সমূহ বিশ্বাস লক্ষ্য করা যায়। জীবনে বেশ কিছু বাধা থাকলেও ভালো সময় আসে। এরা স্বাধীন পেশার প্রতি আগ্রহী এবং বেশি ঝামেলা পছন্দ করে না। চাকরির তুলনায় ব্যবসা এদের পক্ষে বেশী লাভদায়ক। হালকা সন্দেহবাতিক এবং খুঁতখুঁতে স্বভাবের কারণে এদের সাংসারিক জীবন মধ্যমানের হয়। তবে গ্রহদোষের কারণে কুম্ভ রাশির ব্যক্তিরা অনেক সময় খল, নিষ্ঠুর এবং দুশ্চরিত্র স্বভাবের হতে পারে।


মীন রাশি

মীন রাশির মানুষের চরিত্র

মীন রাশির জাতক-জাতিকারা শান্ত, ন্যায়পরায়ণ, ধার্মিক, উদার এবং সৎ প্রকৃতির হয়। এদের মধ্যে মানবিক গুণাবলি ও প্রতিভা স্পষ্টভাবে বিদ্যমান থাকলেও মানসিক অস্থিরতার জন্য ঠিকমতো বিকশিত হয় না। অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে গিয়ে বিপদে পড়তে হতে হয় এদেরকে। এরা স্বভাবত চিন্তাশীল, বিচক্ষণ এবং নিজের কষ্ট সহজে অন্যকে বুঝতে দেয় না। তবে গ্রহদোষ থাকলে অবস্থা সম্পূর্ণ বিপরীত হয়। প্রেমের ক্ষেত্রে অসফল হলেও বৈবাহিক জীবন সুখের হয় এদের। এদের জীবনে অনেক বাধা আসে যা  সহজে দূর হয় না। চিকিৎসা বিজ্ঞান, শিল্প-সাহিত্য এদের জীবনে সফলতা আনতে পারে। এদের জীবনের একমাত্র লক্ষ্য প্রচুর অর্থ উপার্জন করে আনন্দে জীবন কাটানো।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...