বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ সারা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন । রাজ্যেও সর্বতভাবে সরকার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে লকডাউন সফল করার জন্য । এবার লকডাউনের মধ্যেই রাজ্য পরিবহন দপ্তর সিদ্ধান্ত নিল শহরের মোট ৬ টি রুটে বাস পরিষেবা চালু করার জন্য । করোনা প্রতিরোধে রাজ্যে জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের কর্মস্থলে পৌঁছে দিতে এই বাস পরিষেবা চালু করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে ।

রাজ্য পরিবহন দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে এই ছয়টি রুটের বাস পরিষেবা চালু করার পাশাপাশি জরুরী ক্ষেত্রে যাতায়াতের জন্য ওলা-উবেরও কিছু কিছু চলবে । রাজ্য পরিবহন দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে কলকাতায় এই ছয়টি রুটের বাস সকাল আটটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত চলবে ।  যে ছ’টি রুটে বাস চলবে সেগুলি হল, হাওড়া স্টেশন থেকে কামালগাজি, এসপ্ল্যানেড থেকে আমতলা, হাওড়া স্টেশন থেকে নিউডাউন, ডানলপ থেকে বালিগঞ্জ, হাওড়া স্টেশন থেকে গড়িয়া এবং জোকা থেকে বারাসত।

এদিকে রাজ্যে যতই প্রচার করা হোক না কেন করোনা মোকাবিলায় একমাত্র সঠিক দাওয়াই লকডাউন, কিছু কিছু মানুষ এই বিষয়টিকে অনেকটা উৎসবের মেজাজে দেখছেন । রাস্তায় আড্ডা দিতে বের হবার সময় সঙ্গে ভুয়া কাগজপত্র কিম্বা পুরানো প্রেসক্রিপশন হাতে নিয়ে যাচ্ছেন – এমন অভিযোগও পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া যাচ্ছে । এদিকে জরুরী ভিত্তিতে নিয়োজিত মানুষের কথা ভেবে গতকালই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, “পরিবহণ দফতরকে বলেছি, স্পেশাল কিছু ট্রান্সপোর্টের ব্যবস্থা করতে। ধরুন কেউ যদি মেদিনীপুর থেকে আসেন, তা হলে কখন সেখান থেকে বাস ছাড়বে, কলকাতা থেকে ফেরার বাস ছাড়বে কখন সবটা একটা সিস্টেম করতে।”

রাস্তায় যদি কোন অসুবিধা হয় সে বিষয়েও পরিবহন দপ্তর ব্যবস্থা নিয়েছে । জরুরি পরিষেবার কর্মীরা রাস্তায় সমস্যার সম্মুখীন হলে ফোনে যোগাযোগ করতে পারবেন পরিবহণ দফতরের কন্ট্রোল রুমে। সেই নম্বরগুলি হল, ০৩৩-২২৩৬ ১৯১৬, ০৩৩-২২৩৬০৪৬২, ৯৪৩২০২২১৪৭,৮৬৯৭৭৩৩৩৯১, ৮৬৯৭৭৩৩৩৯২। হোয়াটস অ্যাপেও জানানো যাবে সমস্যা। পরিবহণ কন্ট্রোল রুমের হোয়াটস অ্যাপ নম্বর — ৯৮৩০১৭৭০০০। ওলা এবং উবরের কন্ট্রোল নম্বর হল— ৯৪৩৪৩১৫৮৯২,৮৩৩৫০০২১৩৩, ৯৪৩৪৫৫৪৯৪।

Kajal Paul is one of the Co-Founder and writer at BongDunia. He has previously worked with some publishers and also with some organizations. He has completed Graduation on Political Science from Calcutta University and also has experience in News Media Industry.

Leave A Reply