সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

কি কারণে মরতে চাইছেন রনবীর সিং? কি ঘটল যে এতো বড় সিদ্ধান্ত নিতে হল তাঁকে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ দীপিকা পাডুকোন এবং রনভীর সিং যেন একে ওপরের জন্যই তৈরি হয়েছেন। কখনই এই প্রেমিক যুগল একে অপরকে ভালোবাসা জানাতে এবং একে ওপরের কাজে বাহবা দিতে ভোলেন না। এবারে সব সীমা অতিক্রম করে ফেললেন রনভীর সিং। দীপিকার নতুন হেয়ার কাট লুক দেখে তিনি একেবারে আনন্দে মরে যাবার আবেদন করলেন।

View this post on Instagram

Tadaaaaa!!!??‍♀️

A post shared by Deepika Padukone (@deepikapadukone) on

দীপিকা এবং রনভীর সিং এই দুটি নাম যেন বলিউডে সবার মুখে। সবারই খুব প্রিয় যুগল এঁরা। এদের বিয়ের মতোই এই দুজনের প্রেম কাহিনীও যেন একদম অন্যরকম। সম্পূর্ণ বিপরীত মেরুর এই দুজন অভিনেতা ভালোবাসার বাঁধনে আবদ্ধ হন, সঞ্জয় লীলা বনশালির সিনেমার সেটে। তার পরেরটা তো একেবারে ইতিহাস। তারা বিয়ে করেন গত বছর মানে ২০১৮ সালে। ২০১৯ শে পূর্ণ হল তাঁদের এক বছরের বিবাহ বার্ষিকী। প্রেম থেকে শুরু করে তাঁদের বিয়েটা পুরোটাই যেন একটা রূপকথার মত।

ছবির জন্য সব অভিনেতাদেরই লুক পরিবর্তন হয়। কিন্তু ছবির বাইরে দীপিকা খুবই সিম্পল একটি মেয়ে। লুক নিয়ে খুব একটা তিনি এস্কপেরিমেন্ট করেন না। ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখার পর থেকেই প্রায় একই রকম লুকেই তাঁকে দেখা যায়। কিন্তু এবারে তিনি পরিবর্তন করেছেন তাঁর লুক। মানে রনভীর সিং ঘরনী কেটে ফেলেছেন তাঁর সুন্দর চুল। পরিবর্তন হয়েছে তাঁর লুক। আর এই নতুন লুকেই কুপোকাত নায়িকার স্বামী রনভীর সিং। তিনি একেবারে সরাসরি বলেই ফেললেন যে, তাঁকে একেবারে মেরেই ফেলতে। কেনোনা নায়িকাকে নাকি এতোটাই সুন্দর দেখাচ্ছে যে সেই রূপেই ঘায়েল হয়েছে শুধু দেশ বা দীপিকার ফ্যানেরাই নয় নায়িকার স্বামী স্বয়ং রনভীর সিং।

পরপর অনেক গুলো সিনেমাতেই এই দুজনকে একসাথে দেখা গেছে। তবে আগামী বছরে মুক্তি পেতে চলেছে রনভীর সিং অভিনীত কপিল দেবের বায়োপিক ৮৩। এই সিনেমাতে কপিল দেবের স্ত্রীর ভূমিকাতে অভিনয় করেছেন দীপিকা স্বয়ং। এছাড়াও ২০২০ তে মুক্তি পেতে চলেছে দীপিকার ছবি “ছাপাক”। এই সিনেমাতে দীপিকা অভিনয় করতে চলেছেন একজন অ্যাসিড আক্রান্তের ভূমিকায়।

মন্তব্য
Loading...