বয়স্কতম বৃদ্ধার জন্মদিন পালন করে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল কলকাতা পুলিশ

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ অনেকেই হয়ত জানেন না, কলকাতা পুলিশের অধীনে একটি শাখা আছে, যার নাম “প্রণাম” । এরা কলকাতা মহানগরে যে সমস্ত বয়স্ক বৃদ্ধ বা বৃদ্ধারা আছেন বা যাদের ছেলে মেয়েরা দূরে আছে বা নেই তাদের জন্য অনেক কিছু করে । এমনকি এই সমস্ত নিঃসঙ্গ মানুষের পাশে দাড়িয়ে তাদের একঘেয়েমি সময়টাকে আনন্দমুখর করেও তোলেন । ১০৬ বছর বয়সে পা দিলেন শান্তিলতা চৌধুরী। সম্ভবত কলকাতা শহরের বয়স্কতম নাগরিক তিনি । অনেকেই এ কথা না জানলেও, এ কথা জেনেছে এবং মনে রেখেছে কলকাতা পুলিশ । তাই সোমবার সদলবলে তার জন্ম দিন পালন করার জন্য তাঁর বাড়িতে পৌঁছে গেল কলকাতা পুলিশের ‘প্রণাম’ শাখা । শুধু হাজির নয়, রীতিমত তাঁকে ফুল-মিষ্টি দিক অভ্যর্থনা জানিয়ে, জন্মদিনের কেক কেটে পালন করলেন শান্তিলতা চৌধুরীর জন্মদিন।

শান্তিলতা চৌধুরীর নিবাস  দক্ষিণ কলকাতার শরৎ বোস রোডে ।সোমবার দক্ষিণ কলকাতার শরৎ বোস রোডের  বাড়িতে গিয়ে প্রবীণার সঙ্গে বেশ খানিক ক্ষণ সময় কাটিয়ে আসেন টালিগঞ্জ থানার ওসি সরোজ প্রহরাজ  । সাথে  ছিলেন  প্রণামের অফিসাররা ।  শান্তিলতা দেবীর জন্ম ১৯১৩ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর। ২০০৩ সালে পরিবারের তরফেই শতবর্ষ পালিত হয় শান্তিলতার । শান্তিলতা দেবীর স্বামী প্রয়াত অনিল রায়চৌধুরী ছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী ।  তাঁদের তিন মেয়ে । এক মেয়ের বিয়ে হলেও অপর দুইজন অবিবাহিতা । শান্তিলতা তাঁর অবিবাহিতা দুই মেয়ের সঙ্গে থাকেন ।

জানা গেছে,  এই বছরে মুম্বই প্রবাসী তাঁর বিবাহিত মেয়ে ও জামাই পুজোর ছুটিতে আসছেন শান্তিলতার সঙ্গে কিছু দিন কাটানোর জন্য । শান্তিলতা দেবী এখনও বেশ চনমনে আছেন । চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, বার্ধক্যজনিত কিছু সমস্যা ছাড়া মোটের উপর সুস্থই রয়েছেন শান্তিলতা ।

কলকাতা পুলিশের প্রণাম শাখা বেশ কয়েক বছর ধরেই শহরের বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের দেখভাল করার দায়িত্ব নিয়েছে। বেশ কয়েক বার বহু বৃদ্ধকে অসহায় অবস্থা থেকে উদ্ধার করা হোক, বা কাউকে জরুরিকালীন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হোক, প্রণাম শাখা বারবারই মানবিকতার নজির দেখিয়েছে । এমনকি কোন কারন ছাড়াও প্রানাম শাখার সদস্যরা নিয়মিত এই সকল অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়ে আসছে গত বেশ কয়েক বছর ধরে । কিন্তু এই বার বৃদ্ধার জন্মদিন পালন করে তারা মন জয় করে নিল নেটিজেনদের ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...