তুচ্ছ দলীয় অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে রাজনীতিকে বিদায় জানালেন উর্মিলা মাতন্ডকর

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: সম্প্রতি রাজনৈতিক জগত থেকে বিদায় নিলেন ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী উর্মিলা মাতন্ডকর।

চলতি বছরের মার্চ মাসে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস দলে নাম লিখিয়েছিলেন বলিউডের প্রখ্যাত অভিনেত্রী উর্মিলা মাতন্ডকর। জাতীয় কংগ্রেসে তাঁকে স্বাগত জানান তৎকালীন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি এবং বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা রণদীপ সুরযেওয়ালা। কিন্তু আকস্মিক ভাবে বর্ষীয়ান বিজেপি প্রার্থী গোপাল শেট্টির কাছে নির্বাচনে হেরে যান তিনি। একারণেই ভারতীয় জনতা পার্টি-র ওপর স্বাভাবিক ভাবেই একটু ক্ষুব্ধ হয়েছিল উর্মি‌লা। কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্তিকরণ নিয়ে তাঁর ভারত সরকারের বিরোধিতা থেকেই তা স্পষ্ট বোঝা যায়।

রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার পর বারেবারেই আলোচনায় উঠে আসছিলেন উর্মিলা মাতন্ডকর। একারণে বেশ ঝামেলাও পোহাতে হচ্ছিল তাঁকে। আর কিছুদিনের মধ্যেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন; এরই মধ্যে সম্প্রতি অভিযোগ তুলে দল ছারলেন উর্মিলা।

রাজনীতি ছাড়বার মূল কারণ হিসাবে দলীয় অন্তর্দ্বন্দ্বের কথা জানিয়েছেন উর্মিলা। দলের তুচ্ছ অন্তর্দ্বন্দ্বের কথা উল্লেখ করে তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “এটা পরিষ্কার যে মুম্বাই কংগ্রেসের মুখ্য ব্যক্তিরা দলের উন্নতির জন্য সংগঠনে পরিবর্তনে হয় অসমর্থ বা অনিচ্ছুক।”

তিনি আরও বলেন, “আমার রাজনৈতিক ও সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে এটা মেনে নিতে পারব না যে মুম্বাই কংগ্রেসে কোনও বড় লক্ষ্যপূরণের চেষ্টা না করে আমাকে তুচ্ছ দলাদলিতে ব্যবহার করা হবে।”

এছাড়াও, নিজের অসন্তোষের কারণ হিসাবে উর্মিলা মুম্বাই কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি মিলিন্দ দেওরাকে লেখা একটি চিঠির সূত্রে ‘নির্লজ্জ বিশ্বাসঘাতকতার’ অভিযোগও তুলেছেন। মিলিন্দ দেওরাকে পাঠানো তাঁর ওই চিঠির গোপনীয়তাকে অগ্রাহ্য করে তা সংবাদমাধ্যমের কাছে ফাঁস করে দেওয়া হয়, যা তাঁর মতে এক প্রকার নির্লজ্জ বিশ্বাসঘাতকতা।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...