ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে দুই শতাধিক পাক জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: চলতি বছর ২০১৯ এর ৫ই আগস্ট তারিখে ভারত সরকার কতৃক ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ এবং ৩৫এ অনুচ্ছেদ দুটি বাতিল করার পর থেকে সীমান্তবর্তি জম্মু ও কাশ্মীর দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত হয়েছে। কিন্তু ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তকে একেবারেই মেনে নিতে পারছেনা প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তান। ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যবর্তী একটি ঐতিহাসিক সমস্যা হল পাকিস্তান; তা স্বত্বেও, পাকিস্তানের সাথে কোনপ্রকার আলোচনা না করে ভারত সরকার এহেন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় ক্ষুব্ধ হয়েছে পাকিস্তান।

এমনকি, ভারত সরকারের ওপর নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করার উদ্দেশ্যে আন্তর্জাতিক মহলেও বেশ ক’বার ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানায় পাকিস্তান। কিন্তু তাতেও বিশেষ কোনও ফল না হওয়ায় আরও ক্ষুব্ধ হয়ে যাই তারা। একারণে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান প্রায়ই সামাজিক গণমাধ্যমে গোটা বিশ্বকে হুঁশিয়ারি বার্তা দিয়ে চলেছেন।

ভারত সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করবার পর পাকিস্তানের বেশ কিছু জঙ্গি সংগঠন ভারতীয় হিন্দুদের বিরুদ্ধে জেহাদের ডাক দিয়েছিল। প্রায় দুই শতাধিক পাক জঙ্গি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে, সম্প্রতি এমনটাই জানান ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। এপ্রসঙ্গে ভারতের গোয়েন্দা কর্মকর্তা’দের সাথেও আলোচনা করেছেন তিনি।

প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যেই বেশ কিছু বহিরাগত জঙ্গি ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে ধরা পড়েছে। একইসাথে আরও ২৩০ জন জঙ্গির কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় অনুপ্রবেশের চেষ্টা করার কথা জানার পর বর্তমানে খুবই সাবধানতা অবলম্বন করছে ভারতীয় সেনাবাহিনী, যেকোনো মুহূর্তে শত্রুর মোকাবিলা করতে হতে পারে তাদেরকে। পাশাপাশি, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল জানান, বিপুল পরিমাণে অস্ত্র চোরাচালান হচ্ছে এবং কাশ্মীরের মানুষকে সমস্যা তৈরি করার জন্যে উসকে দিচ্ছে পাকিস্তান। যদিও ডোভাল এর সকল অভিযোগই অস্বীকার করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...