সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

আজকের আবহাওয়ার খবর; শৈত্যপ্রবাহের পর বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা কতখানি

পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি বাংলাদেশের আবহাওয়ারও ব্যাপক পরিবর্তন দেখা দিয়েছে । উপমহাদেশীয় উচ্চ চাপ  বলয় সৃষ্টি হয়েছে, সেই চাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চল পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে এবং মৌসুমী বায়ুর স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। আজ সকাল থেকেই বাংলাদেশের অনেক জায়গায়  ঘন কুয়াশায় সূর্যদেবের মুখ এখনও দেখা যায়নি । 

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ গত দুইদিন ধরেই ঘন কুয়াশার কারনে ঠাণ্ডা ঠিক মত পড়ছে না । কিন্তু আকাশ পরিষ্কার হবার পাশাপাশি রাতের দিকে নেমে যাচ্ছে তাপমাত্রা । শীতের শেষে ফের পশ্চিমী ঝঞ্জার প্রভাবে আবহাওয়ার ব্যাপক পরিবর্তন হচ্ছে । আকাশ পরিষ্কার হয়ে যাবার পর ফের ঠাণ্ডা পড়বে । তবে শীত আর বেশীদিন স্থায়ী থাকবে না এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর ।

পশ্চিমবঙ্গের মতই প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশের আবহাওয়া মোটামুটি একই থাকবে । আগামী দুই দিন বাংলাদেশের আবহাওয়ায় পরিবর্তনের কথা জানিয়েছে বাংলাদেশের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ । তিনি জানান, বাংলাদেশের  কিছু কিছু এলাকায় বয়ে যাওয়া মৃদু ও মাঝারী শৈত্যপ্রবাহ আরও ২/৩ দিন অব্যাহত থাকতে পারে। শৈত্যপ্রবাহ কমে আসার পর ঝরতে পারে বৃষ্টি। সেই সাথে কিছুটা কমতে পারে তাপমাত্রা। তবে মাস শেষে তাপমাত্রা বাড়তে পারে। তবে  শৈত্যপ্রবাহ কমে আসলে ২৮/২৯ তারিখে হালকা/গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে । বৃষ্টির পর কিছুটা কমে আসবে তাপমাত্রা। এরপর তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

বাংলাদেশের আজকের আবহাওয়া খবরে জানা গেছে, আগামিকাল শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত বাংলাদেশের কোথাও কোথাও মাঝারী থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশে রাত এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকার সম্ভবনা । তবে বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা নেই । শুক্রবার সকালে বাংলাদেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে। অপর দিকে বাগ্লাদেশের রাজধানী ঢাকাতে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে,  ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর আজকের আবহাওয়ার খবর-এ জানিয়েছে,  সম্প্রতি যে উপমহাদেশীয় উচ্চ চাপ  বলয় সৃষ্টি হয়েছে, সেই চাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চল পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে এবং মৌসুমী বায়ুর স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। আজ সকাল থেকেই বাংলাদেশের অনেক জায়গায়  ঘন কুয়াশায় সূর্যদেবের মুখ এখনও দেখা যায়নি ।

এদিকে, দিল্লির মৌসম ভবন থেকে জানানো হয়েছে ফের সক্রিয় হয়েছে পশ্চিমী ঝঞ্জা । এর প্রভাব পড়বে ভারতের উত্তরাঞ্চলে । হিমাচল প্রদেশ এবং জম্বু ও কাশ্মীর লাগোয়া অঞ্চলে তুষারপাতের সম্ভবনার কথা জানিয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে । সুতরাং শীতের দাপট আবারও দেখা যাবে । আজ রাতের দিকে বেশ ভাল ঠাণ্ডা পড়ার সম্ভবনা আছে ।

মন্তব্য
Loading...