আবার শিরে সংক্রান্তি – জাতীয় দলের মর্যাদা হারাতে চলেছে তৃণমূল

0

লোকসভা ভোটের পর একের পর এক ধাক্কা সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে পশ্চিম বাংলার শাসক দল তৃণমূলকে ।  তৃণমূলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হঠাৎ করেই যেন চুপচাপ হয়ে গেছেন ।  এর উপর হঠাৎ করেই খবর এলো,  তৃণমূল কংগ্রেস,  সি পি আই,  এন সি পি-  এর মত দলগুলি আর জাতীয় দলের মর্যাদা পাবে কিনা সেটি   একটা বড় প্রশ্নের মুখে এসে দাঁড়িয়েছে ।

কারণ 2019 এর লোকসভা নির্বাচনের পর এই দল গুলি আর জাতীয় দলে  থাকার শর্ত পূরণ করতে পেরেছে কিনা,  তা জানতে চেয়ে নির্বাচন কমিশন দপ্তর থেকে চিঠি আসতে পারে । নির্বাচন কমিশনের নিয়ম হলো,  জাতীয় দল হতে গেলে তিনটি শর্তের মধ্যে অন্তত একটি শর্ত  পূর্ণ করতে হবে দলগুলিকে ।

প্রথম শর্ত,  তিনটি রাজ্য থেকে অন্তত লোকসভার 2 শতাংশ আসনে জিততে হবে । অবশ্য তৃণমূল এবার মোট 22 টি আসন পেয়েছে ।  কিন্তু সেটি কেবলমাত্র একটি রাজ্যে হওয়ায় প্রশ্নচিহ্ন থেকে যাচ্ছে ।

দ্বিতীয় শর্ত হলো,  কমপক্ষে চারটি রাজ্যে 6 শতাংশ ভোট পেতে হবে এবং তৃতীয় শর্ত  হল,  চারটি রাজ্যে তাদের রাজ্য দলের স্বীকৃতি পেতে হবে । তৃণমূলের হাতে বাইশটি লোকসভা ও 13 টি রাজ্যসভা আসন আছে ঠিকই,  কিন্তু সবচেয়ে লাখ টাকার প্রশ্ন হল তারা শর্তগুলি সঠিকভাবে পালন করতে পেরেছে কিনা । যদি করতে পারে,  তাহলে জাতীয় দলের মর্যাদা পাবে । আর যদি না করে তাহলে তৃণমূল দলের পক্ষে সমস্যা আসতে পারে ।

আশার কথা এটাই,  তিনটি শর্তের মধ্যে যেকোনো একটিও পালন করতে না পারলে যে এই মর্যাদা সঙ্গে সঙ্গে চলে যাবে,  সে কথা ঠিক নয় । 2014-র  নির্বাচনের পরেও একই ঘটনা ঘটেছিল সি পি আই,  সি পি এম, বসপা -র ক্ষেত্রে । তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছিল । নির্বাচন কমিশনের এক অফিসারের বক্তব্য,  এটি একটি রুটিন প্রক্রিয়া । গত বছর  অনেকের কাছে নোটিশ গিয়েছিল । তারপর অবশ্য বিষয়টি বেশি দূর এগোয়নি ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...