সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

এবার চীনের বিরুদ্ধে গেল ভুটান, বেজিং-এর আগ্রাসনে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ চীন কি চাইছে কেউ বুঝতে পারছে না ঠিক মত ! একদিকে পাকিস্তানকে মদত দিয়ে আসছে চিরকাল, অপর দিকে ভারতের বন্ধু দেশ নেপালকে উসকে দিচ্ছে ভারতের বিরুদ্ধে । এবার ভুটানের পিছনে লেগেছে । চিনা আগ্রাসন থেকে বাদ যাচ্ছে না কেউই। এমনকি ভুটানের জায়গাও নিজেদের বলে দাবি করতে শুরু করে চিন।ফলে একপ্রকার বাধ্য হয়েই এবার চীনের বিরুদ্ধে গেল ভুটান, বেজিং-এর  আগ্রাসনে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা ।

জানা গেছে, একদিকে যেমন ভারতের সীমানা নিজেদের বলে দাবি করছে চীন, ঠিক তেমনি দুর্বল লেপালের বেশ কিছু জমি ইতিমধ্যে দখল করে নিয়েছে তারা । নিজের দলের সদস্যরাই এখন নেপালের প্রধান মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছে । এরমধ্যে ভুটানের বেশ কিছু এলাকা নিজেদের বলে দাবি করেছে চিন। গ্লোবাল এনভায়রনমেন্ট ফেসিলিটি কাউন্সিলের বৈঠকে সাকটেঙ্গ ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি এলাকাকে বিতর্কিত বলে দাবি করেছে বেজিং। যা আদপে ভুটান সীমান্তের অন্তর্গত। ফলে  এবার রাজনৈতিক শাস্তির পথে হাঁটছে ভুটান।

ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি নিয়ে চীন এবং ভুটানের মধ্যে বিবাদ তো দুরের কথা আলোচনা পর্যন্ত কোনদিন হয়নি । ফলে বাস্তবে, এই এলাকা নিয়ে অতীতে কখনই কোনও বিতর্ক হয়নি। যদিও এই এলাকায় চিন ও ভুটানের সীমানা নির্ধারিত ও নির্দিষ্ট নয়। তবে চীনের এই আগ্রাসনের জবাবে  থিম্পু থেকে সরকারি বিবৃতি প্রকাশ করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এই সাকটেঙ্গ ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি এলাকা একেবারেই ভুটানের নিজস্ব সীমানার মধ্যে পড়ছে। এই বিষয়ে কোথাও কোনও দ্বিমত নেই। এই প্রথম কোনও আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্মে উঠে এল ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারির প্রসঙ্গ। আর সেই সুযোগকেই কাজে লাগাতে চাইছে সুবিধাবাদী চিন।

প্রসঙ্গত, গত ২ জুন গ্লোবাল এনভায়রনমেন্ট ফেসিলিটি কাউন্সিলে প্রজেক্ট নিয়ে আলোচনা হলে ভুটানের সীমানায় থাকা এই স্যানচুয়ারি নিয়ে আপত্তি তোলেন চীনের কাউন্সিল সদস্য ঝোংঝিন ওয়াং। তাই চীন কোনভাবেই চায় না প্রকল্পটি হোক তবে এই দাবি পুরোপুরি অস্বীকার করছে ভুটান ।

মন্তব্য
Loading...