সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

ভারত-পাকিস্থানের সম্পর্কে অবিশাস্ব নতুন মোড়

ভারতে কমাস ধরে চলছিল পৃথিবীর সবচেয়ে গণতন্ত্রের উৎসব।৭ দফায় অনুষ্ঠিত ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশ হয়েছে ২৩ শে মে। যা বদলে দিয়েছে ভারত সহ সারা পৃথিবীর রাজনৈতিক মানচিত্র।যার আভাষ পাওয়া গিয়েছে সম্প্রতি পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সদ্য জয়ী নরেন্দ্র মোদীকে পাঠানো শুভেচ্ছাবার্তাতে।

নির্বাচন কমিশানের দেওয়া ফল অনুযায়ী ৫৪২ টি আসনের মধ্যে ৩৫১ টিতে এগিয়ে বি জে পি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট এবং ৯১ টি আসন পেয়ে পরাজিত হয়েছে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট। এরপরই নরেন্দ্র মোদীর কাছে আসতে শুরু করে একের পর এক শুভেচ্ছা বার্তা। প্রথমেই আসে পরাজিত কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর শুভেচ্ছা বার্তা।এরপর আসে সবচেয়ে অপ্রত্যাশিত টুইটার বার্তা, পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের।টুইটারে তিনি লেখেন,” বি জে পি ও তার জোটভুক্ত দল ভোটে জয়লাভ করায় আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।দক্ষিণ এশিয়ার পরিস্থিতি শান্ত করার জন্য এবং এই এলাকার সমৃদ্ধির জন্য আমি তার সঙ্গে কাজ করতে চাই।”

নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর এবং জয়ের পর পার্টীর কেন্দ্রীয় কার্যালয় সভাপতি আমিত শাহের উপস্থিতিতে বিজয়ী ভাষণ দেন তিনি। তিনি বলেন,”এই ফকিরের ঝোলা পূর্ণ করে দিয়েছেন দেশবাসী।এই দেশবাসীকে আমি প্রণাম করি।” যারা এই নির্বাচনী উৎসবে প্রাণ দিয়েছেন বা আহত হয়েছেন তাদের প্রতি তিনি সমবেদনা প্রকাশ করেন।তিনি আরও বলেন, দেশের সামান্য নাগরিকের ভাবনাও দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।তিনি দেশবাসীকে ধন্যবাদ এবং অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, এই ভোটে কোনও প্রার্থী, নেতা লড়েননি, লড়েছেন দেশের আমজনতা। তাই কেউ যদি জয়ী হয়ে থাকে, তাহলে জয়ী হয়েছেন ভারতবর্ষ, হয়েছে দেশবাসী।

মন্তব্য
Loading...