সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

ফের ভয়াবহ বিপদের মুখে বিশ্ববাসী! করোনার থেকেও ১০ গুন শক্তিশালী ভাইরাস ইউরোপে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ফের গোটা বিশ্বের মানব সভ্যতা সংকটের মুখে পড়তে চলেছে ! করোনার চেয়েও ১০ গুন বেশী মারন ক্ষমতা নিয়ে নয়া ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া গেল । মালয়েশিয়ার বিজ্ঞানীরা দাবী করেছেন, করোনার থেকেও ১০ গুন বেশী শক্তিশালী মারন ভাইরাসের সন্ধান পেয়েছেন তারা ।

করোনার আতঙ্কে এমনিতেই দিশেহারা অবস্থা, তার উপর এবার করোনার থেকেও বেশি শক্তিশালী ভাইরাসের সন্ধান পেল মালয়েশিয়ামালয়েশিয়ার  বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ডি৬১৪জি (D614G) নামের একটি ভাইরাসের সন্ধান পেয়েছেন তাঁরা। এই নতুন ভাইরাস বর্তমান কোভিড ১৯ থেকেও কমপক্ষে ১০ গুণ বেশী শক্তিশালী । সবচেয়ে ভয়ের বিষয় ইতিমধ্যে ৪৫ জন মানুষের শরীরে পরীক্ষা করে অন্তত তিনজনের শরীরে এই মারন ভাইরাসের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে ।

কিভাবে এই ভাইরাসের কথা জানতে পারেন বিজ্ঞানীরা ? জানা গেছে মালয়েশিয়া ফেরত এক ভারতীয়ের শরীরে প্রথম পাওয়া যায় ডি৬১৪জি (D614G) নামের নতুন ভাইরাসের সন্ধান । মালয়েশিয়া থেকে ফেরার পর তাঁকে নিয়ম অনুযায়ী ১৪ দিনের জন্য  কোয়ারেন্টাইনের থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল । কিন্তু সেই ব্যাক্তি নিয়ম না মানায় পাঁচ মাসের জেল হয় ও জরিমানাও করা হয়। পরে তাঁর থেকে আরও ৪৫ জন সংক্রামিত হন।

মালয়েশিয়া বা ভারত নয়, ফিলিপিন্স থেকেও ডি৬১৪জি (D614G) নামের ভাইরাসের অস্তিত্ব জানা গেছে । ফিলিপাইনস থেকে ফেরা আরও জনা কয়েক ব্যক্তির মধ্যে খোঁজ মেলে D614G ভাইরাসের।বিজ্ঞানীদের দাবী, করোনা ভাইরাসের চেয়েও বেশি সংক্রামক ও দ্রুত গতিতে ছড়াতে পারে এই ভাইরাস ।কিছু বিশেষজ্ঞ মনে করছেন নতুন ভাইরাসের এই স্ট্রেন যদি দ্রুত গতিতে ছড়াতে শুরু করে, তবে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের পরীক্ষা নিরীক্ষা বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকছে।

ইতিমধ্যে রাশিয়া করোনা ভ্যাকসিন তৈরি করার কথা সরকারীভাবে ঘোষণা করেছে । যদিও সেই ভ্যাকসিন নিয়ে এখনও দোলাচলে রয়েছে সকলে । চীনও করোনা ভ্যাকসিন তৈরি করার পথে । এরই মধ্যে ডি৬১৪জি (D614G) নামের ভাইরাস বিশেষ চিন্তার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে বিজ্ঞানী মহলে । যে ভ্যাকসিন ইতিমধ্যেই বেরিয়েছে, সেই ভ্যাকসিন এই ভাইরাসের ওপর কাজ করবে কি না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন সেদেশের ডিরেক্টর জেনারেল অফ হেল্থ নুর হিসাম আবদুল্লাহ। তবে কিছু বিজ্ঞানীর ধারনা করোনা ভাইরাসই আরও শক্তিশালি হয়ে এই ভাইরাস হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে।

আপাতত করোনার মিউটেশনের ফলে হোক কিম্বা নতুন অন্য কোন ভাইরাস হোক, ডি৬১৪জি (D614G) নামের ভাইরাস ইউরোপ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। এদিকে করোনা ভাইরাস থেকে মৃত্যুর হার ধীরে ধীরে কমে আসছে ।  বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) জানাচ্ছে, রবিবার পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন, ১ কোটি ৪৩ লক্ষ ২১ হাজার ৮৫৩ জন। রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ১৬ লক্ষের বেশি। ৬৫ লক্ষ ১০ হাজারের বেশি চিকিৎসাধীন।

মন্তব্য
Loading...