সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

জাঁকিয়ে শীত পড়ল শহরে; জেনে নিন কতদিন স্থায়ী হবে এই আবহাওয়া

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ডিসেম্বরে এসে শীতের অভাবে যেন মুড়ষে পড়েছিল শীতপ্রিয় বাঙালী। মাঝে মাঝে মুখ দেখিয়েই যেন কোথায় পালিয়ে যাচ্ছিল শীত। অবশেষে শীত যেন ধরা দিল রাজ্যে। রাজ্যবাসীর চিন্তার অবসান ঘটিয়ে একধাক্কায় পারদ নামলো প্রায় ৩ ডিগ্রী।

পশ্চিমী ঝঞ্ঝা, নিম্নচাপ, ঘূর্ণবাত সব মিলিয়েই ডিসেম্বরের প্রায় শেষ সপ্তাহে পৌঁছেও যেন শীত অধরা ছিল। মাঝে এক দুদিন একটু ঠাণ্ডা পরেই ফের তাপমাত্রা বেড়ে গিয়েছিল। উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাত এবং ঘন কুয়াশা জারি ছিল। শেষপর্যন্ত পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপট কাটতেই ফের জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা পড়ল শহরে। সপ্তাহান্তে আরও তাপমাত্রার পারদ কমার ইঙ্গিত দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বুধবার থেকেই যদিও তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছিল কিন্তু বৃহস্পতিবাররে আরও কমলো তাপমাত্রা। সপ্তাহের শেষে কোলকাতা এবং দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় তাপমাত্রা পৌঁছতে পারে প্রায় ১০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি এবং পশ্চিমের জেলাগুলিতে তাপমাত্রা পৌঁছতে পারে প্রায় ৮-৯ ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি।

আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হচ্ছে যে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা কেটে যাবার কারণে উত্তরের ঠাণ্ডা বাতাস ঢুকছে রাজ্যে এবং শহরে। ফলে বৃহস্পতিবার কোলকাতার তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ১৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ১০ ডিগ্রী সেলসিয়াসে গিয়ে পৌঁছেছে। দিনের বেলাতেতো ঠাণ্ডা আছেই রাতে তাপমাত্রা আরও নামবে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার শহরের তাপমাত্রা ছিল ১৮.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস যা বুধবার কমে হয়েছে ১৫.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বৃহস্পতিবার তা আরও কমে গিয়েছে। রাতে তাপমাত্রা আরও ২ থেকে ৩ ডিগ্রী কমে যাবে বলে পূর্বাভাষ আছে।

অবশেষে শহরবাসীকে ঠাণ্ডার আমেজ উপভোগ করার সুযোগ করে দিল উত্তরে হাওয়া। ঠাণ্ডা পড়তেই আবার দূষণও অনেকটা কম হয়েছে বলে পরিবেশবিদদের ধারণা। ফলে এবার নিশ্চিন্ত হয়ে শহরের মানুষ উপভোগ করবে ঠাণ্ডা।

মন্তব্য
Loading...