আবার উপসাগরীয় যুদ্ধের বাতাবরণ; আমেরিকা এয়ার হামলা করল ইরাকের উপর

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ  আবার নতুন করে যুদ্ধ ঘোষণা করল আমেরিকা ।  ইরাক থেকে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় খবর আমেরিকা এবার ইরাকের আইএসআইএস জঙ্গি ঘাঁটিতে এয়ার হামলা করেছে । বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর এবং আগ্রাসী জঙ্গি গশ্তহির নাম আইএস আই । সেই  সন্ত্রাসী সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে উচিৎ শিক্ষা দেবার জন্য তাদের  ঘাঁটিতে বিমান হামলা করল বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশ । আক্রমণের সময় মার্কিন সেনাবাহিনী ৩৬০০০ কেজি বোমা ফেলেছে জঙ্গি ঘাটিতে ।  জানা গেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের আধুনিক বিমান F-35 এবং F-15 এর সাহায্যে এই বোমা বর্ষণ করেছে ।আমেরিকা আগে থেকে খবর পেয়েছিল  তিগ্রি নদীর দ্বীপে আই এস আই জঙ্গিরা ঘাঁটি জমিয়ে বসে ছিল ।পরিকল্পিত ভাবে আমেরিকার দক্ষ বিমান বাহিনী নির্দিষ্ট লক্ষ্যে আঘাত হেনেছে ।

মার্কিন সেনাবাহিনী তরফ থেকে জানানো হয়েছে,  আইএসের নির্মূল করণের জিন্য এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে । শুধু তাই নয়,  এই হামলায় ইরাকী  সৈনাবাহিনীও আমেরিকার পাশে ছিল । এই হামলার মূল উদ্দেশ্য ছিল সন্ত্রাসী সংগঠন ইসলামিক স্টেটের ঘাঁটিগুলি পুরোপুরিভাবে ধ্বংস করে দেওয়া ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব গোয়েন্দা বাহিনী খবর পায়,  ইরাকের মাসুলের সিরিয়া ও জাজিরা রেজিস্তান অঞ্চল ছাড়াও আইএসআইএসের জঙ্গিরা কিরকুক ও মাখমুরে  আস্তানা তৈরি করেছে। সেখান থেকে কানসু দ্বীপ, কায়ারা মার্কিন অপারেটিং বেশ কাছাকাছি অবস্থিত ।আর সেই কানুস দ্বীপে বড় রকম অভিযান চালিয়েছে মার্কিন সেনাবাহিনী । এখনো পর্যন্ত  হামলার ফলে  ২৫ জন সন্ত্রাসবাদী খতম হয়েছে ।  তবে সকলে ধারনা করছে এই বিপুল পরিমাণে বোমা বর্ষণের ফলে  মৃত্যুর সংখ্যা আরো বাড়তে পারে ।

উল্লেখ্য,  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরাক এর মধ্যে হওয়া চুক্তির পর আমেরিকা এই নিয়ে দ্বিতীয়বার হামলা করল ।  এবার দুই দেশের  দুই সেনাবাহিনী এত বড় আক্রমণ চালিয়েছে। এর আগে ২০১৭ সালে  ইরাকি প্রধানমন্ত্রী হায়দার- আল আইএস কে পুরোপুরি নির্মূল করেছে বলে দাবি করেছিলেন । কিন্তু পরে দেখা যায় সেই খবর সঠিক ছিল না । তাই মার্কিন সেনা এই পদক্ষেপ নিয়েছে ।গোয়েন্দা সূত্রে পাওয়া খবর থেকে জানা গিয়েছিল,  এই অঞ্চলে আইএসআই থেকে প্রচুর পরিমাণে স্লিপার সেল তৈরি করে । এই স্লিপার সেলগুলি  সন্ত্রাসী সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে পুনর্জীবিত করেছিল । উল্লেখযোগ্য বিষয় হল যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই প্রথমবারের মতো আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য F-35 বিমানটিকে ব্যবহার করেছে । এই F-35 বিমান টি ৮১০০ কেজি ওজন বহন করতে সক্ষম এবং F-15 বিমানটি ১৩৩৮০ কেজি অস্ত্র ভন করতে পারে। তবে এর আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে আফগানিস্তানে তালিবানি ঘাঁটি ধ্বংস করার জন্য  F-35 যুদ্ধবিমান ব্যবহার করেছিলেন।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...