পাকিস্তানের মন ভাল নেই; জম্বু-কাশ্মীর আর বিতর্কিত এলাকা নয়

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত জম্বু- কাশ্মীরকে আর বিতর্কিত এলাকা বলে বলে করছেন না রাষ্ট্রপুঞ্জ, একারনে বিতর্কিত এলাকাগুলির তালিকা থেকে এই নাম বাদ দেওয়া হয়েছে । আর এই ঘটনায় বেশ বড় ধাক্কা খেয়েছে পাকিস্তানের প্রশাসন । তাদের মন আর ভাল নেই ।

ভারত জম্বু-কাশ্মীরের উপর থেকে ৩৭০ ধারা বিলুপ্তকরণের মাধ্যমে বিশেষ সুযোগ সুবিধাগুলি বন্ধ করে দিয়েছে ।৩৭০ ধারা রদ করার পর থেকেই পাকিস্তান তীব্র প্রতিবাদ করে আসছে । পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিজে বলতে গেলে সারা পৃথিবী চক্কর কেটেছেন জম্বু-কাশ্মীরের জনগণের দুঃখের কথা চিন্তা করে এবং সকলের হাসির খোরাকও হয়েছেন । কিন্তু কিছুতেই কিছু হয়নি । সবচেয়ে বড় কথা এখন সেই জায়গা কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে পরিণত ।

এরপর থেকেই পাকিস্তান আদাজল খেয়ে উঠে পড়ে লেগেছিল রাষ্ট্রপুঞ্জ, বিশেষ করে আমেরিকা জম্বু-কাশ্মীরের সমস্যা নিয়ে হস্তক্ষেপ করুক । স্বয়ং আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ট্র্যাম্প এ প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন, জম্বু-কাশ্মীরের সমস্যা দুই দেশের ব্যাপার । এদিকে আবার সম্প্রতিককালে রাষ্ট্রপুঞ্জের কাছে সারা পৃথিবীর যে বিতর্কিত এলাকার তালিকা আছে, সেখান থেকে জম্বু-কাশ্মীরের নাম বাদ গেছে । কাশ্মীরকে আর বিতর্কিত অঞ্চল হিসাবে না রাখায় বড় ধাক্কা খেল পাকিস্তান প্রশাসন ।

ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক দুই দেশের স্বাধীনতার পর থেকেই সাপে-নেউলে । দুই দেশেই একের পর এক ক্ষমতার রদ বদল হয়েছে, নিজেদের সম্পর্ক ভাল করার জন্য আলোচনা বা নতুন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বেশ কয়েকবার । কিন্তু কিছুতেই কিছু হয়নি । সবচেয়ে বড় কথা, পাকিস্তানের প্রশাসনের একটা বড় ভূমিকা পালন করে বেশ কিছু জঙ্গি সংগঠন । তাছাড়া সে দেশের সেনাবাহিনীর হাতে মুলত ক্ষমতা কুক্ষিগত রয়েছে । ভারতের কোন বিপদে তারা পাশে তো দাঁড়ায়ই না, বরং সমালোচনার সুযোগ পেলেই খুশী ।

সারা বিশ্বে যে সমস্ত সীমান্ত এলাকা নিয়ে পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যে দ্বন্দ্ব লেগেই থাকে, সেই এলাকাগুলিকে চিহ্নিত করে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ ।তার পর সেগুলিকে বিতর্কিত এলাকা হিসাবে তালিকা প্রস্তুত করে । অবশ্য সেখানে ক্ষমতাধর দেশ আমেরিকার একটা বড় ভূমিকা থাকে । দেশ স্বাধীন হবার পর থেকেই দীর্ঘদিন যাবৎ জম্মু-কাশ্মীরের নাম সেই তালিকায় ছিল। কিন্তু সম্প্রতি পাকিস্তান লক্ষ করেছে, কাশ্মীরের নাম বাদ গিয়েছে সেই তালিকা থেকে । এরপরে তারা রাষ্ট্রপুঞ্জে প্রতিবাদ জানিয়েছে। রাষ্ট্রপুঞ্জে পাকিস্তানের প্রতিনিধি আমজাদ হুসেইন বি সিয়াল বলেন, “দীর্ঘদিন যাবৎ বিতর্কিত হয়ে থাকা এলাকাগুলির তালিকায় আর কাশ্মীরের নাম নেই। ভুলবশত কাশ্মীরের নাম ওই তালিকা থেকে বাদ পড়ে গিয়েছে।”

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...