সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

বাড়ানো হতে পারে মেয়েদের বিবাহের বয়সসীমা, জানালেন অর্থমন্ত্রী

'বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও' প্রকল্পের মাধ্যমে মেয়েদের শিক্ষার হার আগের চাইতে কিছুটা হলেও বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু ১৮ বছর বয়স মেয়েদের পূর্ণ শিক্ষার জন্য যথেষ্ট সময় নয় বলেই মেয়েদের বিবাহের বয়সসীমা বাড়ালে তাদের উচ্চশিক্ষালাভের ক্ষেত্রে সুবিধা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। 

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ- শনিবার পেশ করা হল বাজেট। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এদিন সমস্ত ক্ষেত্রে বাজেট পেশ করার পাশাপাশি মেয়েদের অধিকার নিয়ে কিছু বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন যেখানে তিনি নারী ক্ষমতায়ন নিয়ে আলোচনা করেছেন। যেখানে তিনি উল্লেখ করেছেন যে মেয়েদের ন্যূনতম বয়স সীমা বাড়ানো হতে পারে।

আমাদের দেশ যতই উন্নত হোক না কেন, সমাজে আজও মেয়েরা অবহেলিত। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় ১৮ বছরের নীচে বয়স যেসব মেয়েদের দারিদ্রতা বা ভালো পাত্র পেলে বাবা মা বিয়ে দিয়ে দেন। সকল মেয়েদের পক্ষে এর প্রতিবাদ করার মতো অবস্থা বা সুযোগ থাকেনা সেক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক বিয়ের পিড়িতে বসতেই হয় তাদের।

তাই তাদের কথা চিন্তা করেই মেয়েদের বিবাহের ন্যূনতম বয়স কিছুটা বাড়ানোর কথা চিন্তা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে। ইতিমধ্যেই দেশে ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ প্রকল্পের মাধ্যমে মেয়েদের শিক্ষার হার আগের চাইতে কিছুটা হলেও বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু ১৮ বছর বয়স মেয়েদের পূর্ণ শিক্ষার জন্য যথেষ্ট সময় নয় বলেই মেয়েদের বিবাহের বয়সসীমা বাড়ালে তাদের উচ্চশিক্ষালাভের ক্ষেত্রে সুবিধা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্য
Loading...