সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

ড্রোনই চিনে নেবে কে শত্রু, কে মিত্র ! ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য মহাস্ত্র ড্রোন “ভারত”

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ এবার ভারতের সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হল শক্তিশালী মারণাস্ত্র ড্রোন । সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই ড্রোনের নাম রাখা হয়েছে “ভারত” । ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন (DRDO) ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিল এই মারণাস্ত্র । এই ড্রোনের প্রযুক্তি এতটাই উন্নত যে, আকাশে উড়ন্ত অবস্থায় চিনে নিতে পারবে কে শত্রু আর কে মিত্র ।

ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন (DRDO)র ল্যাবেই জন্ম হয়েছে  ড্রোন ভারতের । “ভারত” হলো অত্যন্ত শক্তিশালী একটি ড্রোন। আকারে ছোট, হালকা কিন্তু ক্ষিপ্র এই ড্রোন পৃথিবীর সেরা নজরদারি ড্রোনগুলির একটি। এই ড্রোনটি তৈরি হয়েছে ডিআরডিওর চন্ডীগড়ের ল্যাবগুলিতে। ড্রোনটি কৃত্রিম মেধার মাধ্যমে শত্রু ও বন্ধুকে চিনে প্রয়োজন মতো পদক্ষেপ করতে পারে” এমনটাই DRDO র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ।

দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি শক্তিশালী “ভারত” নিজে থেকেই চিনতে পারবে শত্রু, মিত্র । এমনকি স্বয়ংক্রিয় ভাবেই নিখুঁত স্থানে নিজের কাজ সেরে ফেলতে পারে এই “ভারত।” ইউনিবডি বায়োমাইমেটিক ডিজাইন, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সব মিলিয়ে নজরদারির মারাত্মক সব গুণ রয়েছে এই মহাস্ত্র ড্রোনের। কঠোর প্রতিকূল অবস্থাও ড্রোনের কোনও ক্ষতি করতে পারবে না। অতি শীতল আবহওয়াতেও সমাম কার্যকরী এই ড্রোন।

আকাশে ওড়ার সময় নিজেকে রাডারের হাত থেকে অদৃশ্য রাখতে সক্ষম এটি । সব থেকে বড় কথা হলো কোনও রাডার নিশানা করা তো দূরের কথা পাত্তাই পাবে না এই ড্রোনের। এই ড্রোন ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে আসায় লাদাখ সীমান্তে চীনা শত্রুদের উপর কিম্বা কাশ্মীরে অনুপ্রবেশকারীদের উপর নজরদারী চালাতে সুবিধা হবে জওয়ানদের ।

মন্তব্য
Loading...