সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

হোয়াসঅ্যাপ ব্যবহারে দেখা গেলো বিপদ; অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে উধাও হয়ে গেলো লক্ষাধিক টাকা

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ আজকাল সমস্ত মানুষের জীবনে সোশ্যাল মিডিয়া যেন হয়ে উঠেছে একেবারে সবসময়ের সঙ্গী। সবকিছুই হয়ে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। প্রতিবাদ থেকে তারকা সবই রাতারাতি ভাইরাল করে দিচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া। এর সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সাইবার ক্রাইম। এমনই ক্রাইমের শিকার হয়েছেন দেশের একজন আর্মি অফিসার। Whatsapp থেকে আসা একটি কলের মাধ্যমে সেই অফিসারের খোয়া যায় ৪০,০০০ টাকা।

ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের থানে শহরে অবস্থিত একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা অফিসারের সাথে। তিনি প্রশাসনকে জানান যে, ৬ই ডিসেম্বর তিনি Whatsapp এ একটি মিসডকল পান এবং তিনি কলব্যাক করলে তা নটরিচেবেল আসে। ফলে তিনি সেই নম্বরে ম্যাসেজ করলে তাকে জানানো হয় যে, মিসডকলের ব্যাক্তি তাঁর বন্ধু এবং তিনি আমেরিকাতে থাকেন এবং তার কিছু টাকার প্রয়োজন চিকিৎসার জন্য। এই ম্যাসেজের পরিপ্রেক্ষিতে ওই ব্যাক্তির পাঠানো অ্যাকাউনট নম্বরে প্রাক্তন সেনাপ্রধান টাকা পাঠিয়ে দেন। এরপরও সেই প্রাক্তন সেনা প্রধানের কাছে আরও ২০,০০০ টাকা চাওয়া হলে তিনি সন্দেহে বশবর্তী হয়ে নম্বর যাচাই করে দেখেন যে নম্বর ভুয়ো।

এরপরই তিনি প্রশাসনের দারস্থ হন। এই ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেন প্রশাসন। তবে প্রতিদিন আকছার এই ঘটনা ঘটছে আমাদের দেশে। ফলে প্রশাসন নড়ে চড়ে বসেছে। সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চ কিছু নিয়ম সাধারণ মানুষকে জানাচ্ছে যে, কিভাবে এই প্রতারণার হাত থেকে সাধারণ মানুষ নিজেকে বাঁচাতে পারবেন।

  • Whatsapp এ কোনও ব্যাক্তিকে সম্পূর্ণ যাচাই না করে টাকা ট্রান্সফার করা উচিৎ নয়।
  • জালিয়াতরা সাধারণ মানুষের ব্যাংক ডিটেলস জানতে চায়। সেটা কাউকে জানানো উচিৎ নয়।
  • এরপর সাইবার ক্রিমিনালরা Whatsapp এ একটি কিউআর কোড পাঠায় যেটা আসলে একটি মানি রিসিরভার কোড।
  • কোনও ব্যাক্তি যদি সেটা না জেনে কোড স্ক্যান করে নিজের পিন শেয়ার করে তবে সঙ্গে সঙ্গে উক্ত ব্যাক্তির অ্যাকাউনটের টাকা জালিয়াতের অ্যাকাউনটে চলে যাবে।

এইসব কথা গুলো মাথায় রেখে সবাইকে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যাবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন প্রশাসন।

মন্তব্য
Loading...