সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

ফিল্মি কায়দায় গাড়ি উড়াল দিয়ে কেষ্টপুর খালে, জলে ডুবে মৃত যাত্রী

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ এ যেন বাস্তব নয়, একেবারে ফিল্মি কায়দায় প্রবল গতিতে রেলিং টপকে উড়াল দিল গাড়ি, আর পড়ল গিয়ে কেষ্টপুর খালের জলে । রবিবার রাত দেড়টা নাগাদ প্রবল গতিতে রাস্তার বাঁক নেবার সময়  নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ধারের লোহার রেলিং ও সিমেন্টের গার্ড রেল ভেঙে সটান খালে গিয়ে পড়ল একটি চারচাকা গাড়ি।চালক পালিয়ে গেলেও জলে ডুবে মারা গেল যাত্রী ।

জানা গেছে, রবিবার রাত দেড়টা নাগাদ  উল্টোডাঙা থেকে এয়ারপোর্টের দিকে প্রবল গতিতে একটি চার চাকার গাড়ি ভিআইপি রোড ধরে এগিয়ে চলে । কিন্তু  কেষ্টপুরে ভিআইপি রোডে বাঁক নিতে গিয়েই ঘটে বিপত্তি । চালক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেলে । একেবারে উড়াল দিয়ে চার চাকার যানটি পড়ে কেষ্টপুর খালের জলে । সঙ্গে সঙ্গে পালিয়ে যান চালক। এরপরই ব্রেকডাউন ভ্যানের সাহায্যে গাড়িটিকে উদ্ধার করে বাগুইআটি ট্রাফিক পুলিশ।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, কেষ্টপুরে রোড ডাইভারসনের কাছে এসে হঠাত্‍ই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে গাড়িটি। তারপর খালের ধারের লোহার রেলিং ভেঙে কিছুটা এগিয়ে ফের দুটি সিমেন্টের গার্ডরেল ভেঙে ফেলে একপ্রকার উড়ে গিয়ে খালের ধারে গিয়ে পড়ে। তারপর আস্তে আস্তে গড়িয়ে খালের জলে ঢুকে যায় গাড়িটি। তা বুঝতে পেরে ছুটে যান এক রিকশাচালক ও স্থানীয় দু’জন নির্মাণকর্মী। তাঁরাই বাগুইআটি থানা এবং ট্রাফিকের পুলিশকে খবর দেন। দ্রুত ব্রেকডাউন ক্রেন নিয়ে হাজির হয় ট্রাফিক পুলিশ।পুলিশ আসার পর উদ্ধার কাজ শুরু হয় ।

পুলিশ জলে নেমে গাড়ির ভিতরে থাকা যাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা করলেও দরজা আটকে যাওয়ায় বাইরে বের করা সম্ভব হয়নি।গাড়িটিকে মাটির উপরে তোলার পর দরজা খোলা সম্ভব হয় । কিন্তু তার আগেই দমবন্ধ হয়ে মারা যায় যাত্রী । মৃতের পরিচয় পুলিশ জানতে পেরেছে ।  মৃত যাত্রীর নাম রতন দাস (৩২) ।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, রবিবার রাত দেড়টা নাগাদ  উল্টোডাঙার থেকে এয়ারপোর্টের দিকে গাড়িটি যাত্রী নিয়ে যাচ্ছিল । গাড়ি চালাচ্ছিলেন রতন দাস নামে  একটি বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুল্যান্স চালক। রবিবার ছুটির দিনে অতিরিক্ত আয়ের জন্য বেসরকারি গাড়িতে চালক হিসাবে কাজ করেন তিনি ।

মন্তব্য
Loading...