আগামী দিনে প্রচুর পরিমাণে লোনের অনুমোদন করার পথে হাঁটতে চলেছে ব্যাঙ্ক, জানালেন অর্থ মন্ত্রী নির্মলা

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ভারতের অর্থনৈতিক পরিকাঠামো বর্তমানে তলানিতে এসে ঠেকেছে । এই পতনশীল  অর্থনীতিকে চাঙা করতে বেশ কিছু উদ্যোগ নিতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার ।  মরিয়া হয়ে সম্প্রতি একের পর এক ঘোষণ করে চলেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন । আগামী দিনে ব্যাঙ্কগুলি যাতে সহজে লোণ দিতে পারে সে বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করছেন তিনি । পূজার আগেই সাধারন জনগনের কাছে ব্যাঙ্কিং পরিসেবা পৌঁছে দেবার জন্য  অর্থমন্ত্রী রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলির শীর্ষকর্তাদের সঙ্গে বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন ।

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলির শীর্ষকর্তাদের সঙ্গে  আলোচনা করার পড়ে অর্থ মন্ত্রী নির্মলা সিতারমন সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, দেশের ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থায় এবং অর্থনীতিতে নগদের জোগান ইত্যাদি বিষয়ে ব্যাঙ্ক কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন তিনি । উল্লেখ্য  শুক্রবার জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠক রয়েছে । সেই কাউন্সিলের বৈ্কের আগে ব্যাংক কর্তাদের সঙ্গে তাঁর এই আলোচনার বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

অর্থ মন্ত্রী নির্মলা সিতারমন সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান  এবার উৎসবের মরসুমে অর্থাৎ আসন্ন দুর্গা পূজার সময়ে সাধারণ মানুষের কাছে সহজ শর্তে ঋণ পৌছে দিতে ব্যাংকগুলিকে অভিনব জনসংযোগের উদ্যোগ নিতে বলা হয়েছে ৷ অর্থমন্ত্রীর বক্তব্য, ব্যাঙ্কগুলিকে অনেকটা লোন মেলার মতো উদ্যোগ নিতে হবে,  যাতে সাধারণ মানুষ এসে কোনও ব্যাংক বা এনবিএফসি থেকে সহজে ঋণ পায় ৷ এজন্য মন্ত্রী জানান, আগামী ১৫ অক্টোবরের মধ্যে, দুটি ধাপে ২০০টি করে জেলায় অর্থাৎ মোট ৪০০ জেলায় এই লোন মেলার আয়োজন করবে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্ক এবং এনবিএফসি সংস্থাগুলি ৷ গ্রামের দিকে এখনও সাধারন মানুষ সমবায় সমিতি বা ক্ষুদ্র কোন প্রকল্প থেকে চড়া সুদের হারে টাকা ধার করে । এখনও মহাজনের কাছে কোন কিছু বাঁধা দিয়ে টাকা ধার করে এবং পড়ে সেই টাকা শোধ করতে গিয়ে সহায় সম্বলহীন হয়ে পড়ে । এমতাবস্থায় অর্থ মন্ত্রীর এই ঘোষণা সাধারন মানুষের মনের জোর অনেক খানি বাড়িয়ে দিতে পারে বলে ধারনা ।

অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, ব্যাঙ্কগুলিকে ‘পাবলিক লেন্ডিং’ বা সাধারণ গ্রাহককে বেশি করে ঋণ দিতে বলা হয়েছে। এরই পাশাপাশি অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি সংস্থাগুলিকেও (এমএসএমই) ভাল লাভজনক ব্যবসায় পরিণত করতে এবং খুব সহজে যাতে বেশি করে ঋণ দেওয়া সম্ভব হয়, সে কথা বলা হয়েছে । পাশাপাশি তিনি জানান, ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যাতে কোনও MSME (এম এস এম ই)  ঋণ যদি অল্প কিছু দিনের জন্য ঋণ গ্রাহিতার কাছে থেকে অনাদায়ী হয়ে যায় তাহলেও সেই অ্যাকাউন্ট যেন সাথে সাথে অনাদায়ী হিসাবে ঘোষণা না করা হয় ।  বরং চেষ্টা করতে হবে সেই অনাদায়ী ঋণগুলিকে পুনর্গঠন করার ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...