রামায়নের প্রশ্নে সোনাক্ষি কনিফিউজড ছিলেন নাকি জ্ঞানের সীমাবদ্ধতা

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক:দাবাং গার্ল খ্যাত সোনাক্ষি সিনহার উপর ক্ষিপ্ত হয়েছেন নেটিজেনরা। অমিতাভ বচ্চনের সাথে কোন বনেঙ্গা কোড়পতির অনুষ্ঠানে খেলতে গিয়ে বেজায় বিপাকে পড়লেন নায়িকা সোনাক্ষি। তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়, রামায়ণের গল্প অনুযায়ী হনুমান কার জন্যে সঞ্জীবনী বুটি নিয়ে আসেন। তাকে দেওয়া হয় চারটি উত্তরের অপশন- এ সুগ্রীব, বি লক্ষ্মণ, সি সীতা এবং ডি রাম।

সিনেমায় সোনাক্ষি ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসোরার বিজ্ঞানীর অভিনয় করলেও ভক্ষরা মনে করছেন আসলে কী জ্ঞান আছে নাকি মাথা ফাকা আবার কেউ কেউ বলছেন গোবলে ভর্তি। মালদ্বীপে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন সোনাক্ষী সিনহা। ফিরে এসে তিনি উপস্থিত হন ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র আসরে।

সাধারণত সেলিব্রেটিরা এই শো থেকে যে অর্থ উপার্জন করেন, তা দান করেন কোনো সমাজসেবা মূলক কাজে। এ প্রশ্নে এতই কনফিউজড হয়ে পড়েন সোনাক্ষী, যে তাকে সাহায্য নিতে হয় লাইফলাইন থেকে। তাও আবার এক্সপার্ট অ্যাডভাইস! তারপর থেকে শুরু হয় সমালোচনার বন্যা বয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকে সোনাক্ষিকে কটাক্ষ করে লিখছেন, ‘এরা আমাদের সেলেব্রিটি! লজ্জাজনক!’

নেটিজেনরা তো আর কম যান না। তাদের অনেকেই বলছেন, মুম্বাইয়ে সোনাক্ষির বাড়ির নাম ‘রামায়ণ’। তার বাবার নাম শত্রুঘ্ন। তিন কাকার নাম রাম, লক্ষণ ও ভরত। দুই ভাইয়ের নাম লব ও কুশ। রামায়ণের এত চরিত্র চারপাশে রেখেও রামায়ণের ইতিহাসে এত দুর্বল সোনাক্ষি! বেশ হতাশার বিষয় এটা।

ভারতীয় হয়ে একজন সেলিব্রিটির রামায়ন মহাভারত জানা না থাকায় সমস্ত মিডিয়া জুড়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...