কড়া নিরাপত্তার মাঝেও ঢুকে পড়ল জইশ সন্ত্রাসী দল

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: কাশ্মীর সীমান্ত দিয়ে পাক জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের চক্রান্তের বিষয়ে আগাম সতর্কবার্তা দিয়েছিল ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। সেইমতো সতর্ক ভারতীয় নিরাপত্তারক্ষিরা গত সপ্তাহে পাক জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের বেশ ক’টি চক্রান্ত ভেস্তে দিয়েছে। তা স্বত্বেও নিরাপত্তারক্ষিদের চোখে ধুলো দিয়ে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-এ-মহম্মদের অন্ততপক্ষে ৪-৫ জন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীর একটি দল ভারতে ঢুকে পড়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত হতেই হাই অ্যালার্ট‌ জারি করা হয়েছে উপত্যকায়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের জনৈক শীর্ষ আধিকারিকের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, সীমান্তে যখন পাকিস্তানের বর্ডার অ্যাকশন টিম(ব্যাট) এর গুলির জবাব দিচ্ছে ভারতীয় সেনা, সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ঢুকে পড়েছে বেশ কয়েকজন জইশ জঙ্গি।

খবর পাওয়া মাত্র উপত্যকায় জারি হয়ে গিয়েছে হাই অ্যালার্ট‌। সূত্রের খবর, পাক অধিকৃত সীমান্ত দিয়ে চার থেকে পাঁচ জনের একটি জঙ্গি দল ঢুকে পড়েছে।

সেনা সূত্রে পাওয়া তথ্য মতে, গোয়েন্দাদের কাছে আগেই খবর ছিলো, যে কোনও মূল্যে ভারতে অনুপ্রবেশের জন্য মরিয়া প্রয়াস চালাচ্ছে ‘জইশ-এ-মহম্মদ’ এবং ‘লস্কর-এ-তৈবা’র প্রায় ১৫ জন দুর্ধর্ষ জঙ্গি। পুলওয়ামা হামলার মতো বড়ো নাশকতার ছক কষেছে তারা। সেই খবর পাওয়ার পরই সীমান্তে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। যাতে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর মাছি গলতে না পারে, এমন নজরদারি চালানো হচ্ছে। সীমান্তরেখা বরাবর গুরেজ, তাংধার, মাচিল সেক্টরে বাড়তি বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। কার্গিলেও নিরাপত্তা জোরদার করেছে সেনা।

নিরাপত্তার এহেন বর্জ্র‌ আঁটুনি স্বত্বেও কীভাবে জঙ্গি অনুপ্রবেশ ঘটল, এ নিয়ে কপালে ভাঁজ পড়েছে রাজ্য প্রশাসনের। রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর। উপত্যকার সীমান্তবর্তি গ্রামগুলিতে নাকাতল্লাশি শুরু হয়েছে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...