সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

জন্মদিনের অনুষ্ঠানে নিজের ব্যাক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন শর্মিলা ঠাকুর

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ- ৭৫-এ পা দিলেন সত্তরের দশকের বিখ্যাত বলিউড অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর।প্রতিবছরই নিজের পরিবারের সদস্যদের সাথে রনথম্ভরেই জন্মদিনের বিশেষ মুহূর্ত কাটান তিনি। কিন্তু এইবছর জন্মদিন উপলক্ষে তিনি একটি রেডিও শো তে এসেছিলেন। এই শো টি তার বউমা করিনা কপূরের শো ছিল। এখানেই তিনি নিজের ব্যাক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে কিছু কথা বললেন।

তার আর নবাব মনসুর আলি খান পতৌদির প্রেম এবং বিয়ের কথা সকলেরই জানা। যদিও অনেক কম বয়সেই তার বিয়ে হয়েছিল নবাব পরিবারে। বিয়ের পর তিনি কীভাবে শ্বশুরবাড়িতে মানিয়ে নিতেন সে সম্পর্কে তিনি বলেন যে, তিনি ছিলেন বাঙালি ব্রাহ্মন পরিবারের মেয়ে। অন্যান্য বাঙালি মেয়েদের মতোই তিনিও বাঙালি খাবারেই অভ্যস্ত ছিলেন। অন্যদিকে মনসুর আলি খান ছিলেন মুসলিম নবাব। তাদের খাবার দাবারের ধরন একটি বাঙালি পরিবারের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা ছিল।বিয়ের পর শর্মিলা ঠাকুরকে নিজের ধর্ম এবং নাম পরিবর্তন করতে হয়েছিল। নাম পরিবর্তনের পর তার নাম হয়েছিল আয়েশা বেগম।বিয়ের পর যখন শর্মিলা ঠাকুর এই বাড়িতে আসেন তখন নতুন ধরনের খাবার খেতে তার পক্ষে খুবই অসুবিধা হয়েছিল। নবাব পরিবারের কেউই ভাত খেতেন না। খাবার নিয়ে তার আর নবাব সাহেবের মধ্যে বচসাও হত।

কিন্তু সমস্ত কিছু মানিয়ে নিতে সময় লাগলেও পরবর্তী সময়ে এসবের সাথে তিনি অভ্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। নবাব মনসুর আলি খান এবং তিন ছেলে মেয়ের সাথে সুখে জীবন কাটিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য
Loading...