‘বৃষ্টিবাড়ি’ গড়ে উঠছে আসানসোলের পলাশডিহি গ্রামে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: জল সংরক্ষণের জন্য শহরের রাস্তায় রাস্তায় পোস্টার নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে নেমেছিলেন আসানসোল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষক অভিজিৎ দেবনাথ। কিন্তু শহরের মানুষ তাঁর কথায় তেমন কান দেননি। অথচ গ্রামের মানুষ উৎসাহ দেখিয়েছেন বৃষ্টির জল সংরক্ষণের সচেতন বার্তায়। আর তাই নিজের খরচেই গ্রামে করে ফেলেছেন বৃষ্টির জল ধরে রাখার জন্য প্রকল্প বা রেনওয়াটার হার্ভে‌স্টিং। আসানসোলের পলাশডিহা গ্রামে গড়ে তোলা হয়েছে এই প্রকল্প।

জানা গিয়েছে, বেশীরভাগ দিন-মজুর’দের বাস এখানে। পুরনিগমের জলের ব্যবস্থা থাকলেও এখানকার মানুষের কাজের সময়ের কারণে সেই জল সংগ্রহ করতে পারতেননা তারা। আর তাই পানীয় জলের সমস্যা না থাকলেও জলের সমস্যা ছিল। এই কথা জানার পরে অভিজিৎ দেবনাথ সেখানকার মানুষদেরকে বৃষ্টির জল সংরক্ষণের কথা বলেন। গ্রামের মানুষ উৎসাহ দেখান। অভিজিৎ দেবনাথকে সহায়তা করতে এগিয়ে আসেন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের আরেক শিক্ষক চন্দ্রশেখর কুণ্ডু। এরপর এই দুই শিক্ষকের চেষ্টায় পলাশডিহা গ্রামে গড়ে উঠেছে ‘বৃষ্টিবাড়ি’ প্রকল্পের একটি পাইলট প্রোজেক্ট। আপাতত ছোটো করে এই প্রোজেক্ট শুরু করা হয়েছে। যাতে মানুষজনের কাছে বৃষ্টির জল ধরে রাখার বিষয়টি পরিষ্কার হয়েছে।

বৃষ্টি হলে এখানে দুটি বড় বড় ড্রাম ভরে উঠছে এবং সেই জল দৈনন্দিক নানা কাজে ব্যবহার করতে পারছেন গ্রামের মানুষ। বাসিন্দারা জানিয়েছেন, তারা উপকৃত হচ্ছেন এই বৃষ্টির জল ধরে রাখাতে। আগামী দিনে এই ধরণের আরও প্রকল্প গড়ে তোলার ইচ্ছা আছে বলে জানিয়েছেন অভিজিৎ দেবনাথ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.