র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) -এর বড়সড় সাফল্য – বন্দুক যুদ্ধে দুই বনদস্যু নিহত

সুন্দরবনের বনের অনেক বনদস্যু আত্মসমর্পন করলেও এখনও এদের দৌরত্ম রয়েছে। এই বনদস্যুদের নিয়ন্ত্রন করার জন্য সরকারের বিভিন্ন বাহিনী চেষ্টা চালায় । তারই ধারাবাহিকতার ফলে  আজ দুই জন বনদস্যু নিহত হয়েছে। সুন্দরবনে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)এর সাথে বন্দুক যুদ্ধে বনদস্যু খালেক বাহিনি প্রধান খালেকসহ দুই দস্যু নিহত হয়েছে ।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) ভোররাতে পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদ পাই রেঞ্জের জোংড়া খালে র‌্যাব-৮ এর সাথে বন্ধুক যুদ্ধে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। এসময় ওই এলাকা তল্লাশি করে অস্ত্রসহ  গোলা বারুদ উদ্ধার করেছে র‌্যাব সদস্যরা । র‌্যাব-৮ এর এর উপ অধিনায়ক মেজর খান সজিবুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার ভোর রাতে র‌্যাবের নিয়মিত টহলের অংশ হিসেবে সুন্দরবনের জোংড়ার খাল এলাকায় টহল দিচ্ছিল। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সুন্দরবনের ভিতর থেকে র‌্যব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে দস্যুরা । র‌্যাব ও পাল্টা গুলি চালায় ।

এভাবে সকাল সাতটা পর্যন্ত থেমে থেমে দস্যুদের সাথে গুলি বিনিময়ের পর দস্যুরা পিছু হটে। পরে ওই এলাকা তল্লাশি করে দুই দস্যুকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে গুলিবিদ্ধ দুই দস্যুকে দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষনা করেন। এসময় স্থানীয় জেলে ও সাধারন মানুষ একজনকে সুন্দরবনের বনদস্যু খালেক বাহিনীর প্রধান খালেক ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড বেল্লাল বলে সনাক্ত করেছে । নিহতদের মরদেহ দাকোপ থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান এক কর্মকর্তা।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য