নিজে নিজেই ডিজিটাল রেশন কার্ডের আবেদন সহজে কিভাবে করবেন ? জেনে নিন অনলাইন পদ্ধতি

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ কেন্দ্র সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী মোটামুটি সমস্ত ডকুমেন্ট এর সাথে আধার কার্ডের লিংক করাতে হবে । এখন  ভোটের কার্ডের অনলাইন ভেরিফিকেশন চলছে । কিন্তু ভোটের কার্ডের  পাশাপাশি আধার কার্ড ও  রেশন কার্ড একটি প্ প্রয়োজনীয় নথি । পাশাপাশি এনআরসি আতঙ্কে গোটা দেশ । সুতরাং আপনার নথিপত্র ঠিকমতো সাজিয়ে রাখা বুদ্ধিমানের কাজ হবে ।

রেশন কার্ড সংশোধন এবং নতুন  ডিজিটাল রেশন কার্ডের সময়সীমা বাড়ালেও গত মাসে যে পরিমাণে মানুষ অফিস গুলির সামনে লাইনে দাঁড়িয়েছে সেটা একবার ভাবলেই শিউরে উঠতে হয় । কারণ এমনও গেছে সকালবেলায় লাইনে দাঁড়িয়ে বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষা করেও কোন কাজে কাজ হয়নি ।

সুতরাং, প্রথম প্রশ্ন হল,  আপনার কি এখনো ডিজিটাল রেশন কার্ড করা হয়নি ? যদি উত্তর হয় “না”,  তাহলে পরবর্তী প্রশ্ন,  এর জন্য কি করতে হবে ? যদি আপনার জানা থাকে তাহলে ভালো,  কিন্তু জানা না থাকলে কিভাবে ঘরে বসেই ডিজিটাল রেশন কার্ডের আবেদন করতে পারবেন সেটা একবার দেখে নিন ।

একথা সত্যি রেশন কার্ড একটি অতি প্রয়োজনীয় নথি । বিশেষ করে ঠিকানার এবং নাগরিকত্ব প্রমানপত্র হিসেবে রেশন কার্ডকে  গণ্য করা হয় । উল্লেখ্য বেশ কিছুদিন আগেই পশ্চিমবঙ্গ সরকার পুরনো রেশন কার্ডের বদলে ডিজিটাল রেশন কার্ড চালু করেছেন  । কিন্তু অনেকের ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরি হয়ে গেলেও এখনো প্রচুর লোক রয়েছেন, যাদের নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরি করা হয়নি । তবে ঘাবড়াবার কিছু নেই । লাইনে না দাঁড়িয়ে অনলাইনে ডিজিটাল রেশন কার্ড এর আবেদন করা যাবে । 

কারা ডিজিটাল রেশন কার্ড এর জন্য আবেদন করতে পারবেন অনলাইনে,  তার জন্য কিছু শর্ত আছে ।
প্রথমত, যিনি ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য অনলাইনে আবেদন করবেন সেই আবেদনকারীর যদি কোন রেশন কার্ড না থাকে তাহলে নতুন রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন ।
দ্বিতীয়ত, রেশন কার্ডের সময় সীমা পেরিয়ে গেলে নতুন কার্ডের জন্য আবেদন করা যেতে পারে ।
তৃতীয়ত, সদ্য বিবাহিত কোন দম্পতি নতুন করে ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন ।
অনলাইনে ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে গেলে কিছু নথিপত্র বা দরকারি কাগজ আপনার হাতের নাগালে রাখতে হবে ।
১) প্রথমেই নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ডের আবেদন করতে অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম প্রয়োজন । অনলাইনে আপনি অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ডাউনলোড করে নিতে পারবেন ।
২) নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড করার সময় যিনি পরিবারের প্রধান তার পাসপোর্ট মাপের ছবি লাগবে ।
৩) আবেদন করার সময় আবেদনকারীর পরিচয় পত্র বা পরিচয়ের প্রমাণপত্র লাগবে । পরিচয়ের প্রমাণপত্র হিসাবে ভোটার কার্ড, আধার কার্ড,  ড্রাইভিং লাইসেন্স, ভারতীয় পাসপোর্ট প্রভৃতি ব্যবহার করতে পারেন ।
৪) আবেদনকারীর বসবাসের ঠিকানার প্রমাণপত্র লাগবে । ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে ভোটার কার্ড, আধার কার্ড,  ড্রাইভিং লাইসেন্স,  ইলেকট্রিসিটি বিল,  ব্যাংকের বই,  জলের বিল,  পাসপোর্ট এগুলির মধ্যে যেকোনো একটি দরকার।
৫) ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য অনলাইনে আবেদন করার সময় পরিবারের সকল সদস্যদের যাবতীয় তথ্য বিশেষ করে আয় সংক্রানত তথ্য দিতে হবে ।
নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য অনলাইনে আবেদন করার পদ্ধতিঃ
নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড এর জন্য আবেদন করতে গেলে প্রথমেই দরকার আপনার অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম । পশ্চিমবঙ্গ সরকারের খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তরের ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনি অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ডাউনলোড করতে পারবেন । https://wbpds.gov.in/ এই সাইটে গিয়ে  হোমপেজের FEATURES মেনুতে Form অপশনে গিয়ে View Form ।

সেথান থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন শহর এবং গ্রামের জন্য আলাদা ফর্ম । 
এরপর Application form for conversion of RKSY-II লিঙ্ক এ ক্লিক করতে হবে । সেখান থেকে অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ডাউনলোড করতে পারবেন । এই ফরমে প্রয়োজনীয় প্রত্যেকটি তথ্য পূরণ করে সমস্ত দরকারি প্রমানপত্রের সঙ্গে আপনার নিকটবর্তী রেশন অফিসে অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম জমা দিলে একটি  নম্বর পাবেন সেই অ্যাপ্লিকেশন নম্বরটি যত্ন করে রেখে দিন । 
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...