ভারতের জাতীয় পতাকার ডিজাইনার সুরাইয়া বদরুদ্দিন তায়াবজি

0

১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবস কিন্তু ২২ জুলাই জন্ম হয় জাতীয় পতাকার। ত্রিবর্ণরঞ্জিত ২৪ টি দণ্ডযুক্ত নীল ‘অশোকচক্র’ সহ গেরুয়া, সাদা ও সবুজ আনুভূমিক আয়তাকার এ পতাকার ডিজাইন করেছিলেন সুরাইয়া বদরুদ্দিন তায়াবজি। স্বাধীনতা প্রাপ্তির কয়েকদিন পূর্বে ১৯৪৭ সালের ২২ জুলাই বিশেষভাবে গঠিত গণপরিষদ এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয় যে ভারতের জাতীয় পতাকাকে সব দল ও সম্প্রদায়ের নিকট গ্রহণযোগ্য করে হতে হবে। ১৯০৬ সালে ৭ আগস্ট কলকাতার পার্সিবাগান স্কোয়ারে বঙ্গভঙ্গবিরোধী এক সভায় প্রথম ভারতের পতাকা উত্তোলিত হয়। পরবর্তীতে ১৯০৭ সালের ২২ জুলাই জার্মানির স্টুটগার্ট শহরে আরেকটি পতাকা উত্তোলন করা হয়।

বদরুদ্দীন তায়েবজীর স্ত্রী সুরাইয়ার বানান জাতীয় পতাকার নকশা পন্ডিত নেহেরুর ভালো লাগায় তিনি গাড়ির বনেটে লাগিয়েছিলেন। সুরাইয়া নারী অহিংস স্বাধীনতা আন্দোলনে ভূমিকা নিয়েছিলেন। সুরাইয়ার স্বামী বদরুদ্দিন ফাইজ তায়াবজি ছিলেন ভারতীয় সিভিল সার্ভিস (আইসিএস) এর একজন অফিসার। তিনি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে কর্মরত ছিলেন। অজ্ঞাত কারনে এই ডিজাইনার থেকে যায় ইতিহাসের আড়ালে। বিশ্বের অন্যতম মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় ভারতের জাতীয় পতাকার নকশা প্রস্তুতকারী ভেঙ্কাইয়া স্বরাজ পতাকার ভিত্তিতে করা হয় বলে উল্ল্যেখ করা হয়।

ভারতের জাতীয় পতাকার তিনটি রং । ওপরে গাঢ় গৈরিক বর্ণ ত্যাগ, বৈরাগ্য ও সাহসিকতার প্রতীক । মাঝে সাদা রং শান্তি ও সত্যের প্রতীক । নীচের সবুজ রং বিশ্বাস ও প্রাণ প্রাচুর্যের ইঙ্গিত বহন করে । সাদা রং -এর মাঝখানে ঘন নীল রঙের চব্বিশটি দণ্ডযুক্ত “অশোকচক্র” হল ন্যায়, ধর্ম ও প্রগতির প্রতীক । ভারতে এই পতাকাটিকে সাধারণত “তেরঙা” বা “ত্রিবর্ণরঞ্জিত পতাকা” বলা হয় । ভারতের আইনে কেবলমাত্র খাদিবস্ত্র দিয়েই জাতীয় পতাকা প্রস্তুত করার নিয়ম রয়েছে। ভারতীয় মানক ব্যুরো [Bureau of Indian Standards] জাতীয় পতাকার উৎপাদনের পদ্ধতি ও নির্দিষ্ট নিয়মকানুন স্থির করে দেয় । পতাকার ব্যবহারবিধি “ভারতীয় পতাকাবিধি” (Flag Code) আইন অনুসারে নিয়ন্ত্রিত হয় । বিধি অনুযায়ী, স্বাধীনতা দিবস, সাধারণতন্ত্র দিবস সহ অন্যান্য জাতীয় দিবস ছাড়া সাধারণ নাগরিকেরা পতাকা উত্তোলন করতে পারতেন না । ২০০২ সালে, সুপ্রিম কোর্ট সাধারণ নাগরিকদের জাতীয় পতাকা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ার জন্য ভারত সরকারকে পতাকাবিধি সংস্কারের নির্দেশ দেন । ভারতের কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট পতাকাবিধি সংস্কার করে কয়েকটি সীমিত ক্ষেত্রে জাতীয় পতাকার ব্যবহার অনুমোদিত করে ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...