সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

জেটলি’র শেষকৃত্যে বাবুল সুপ্রিয় সহ ১১ জনের মোবাইল চুরি গেছে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: সম্প্রতি ইহলোক থেকে চিরকালের মতো বিদায় নিলেন ভারতীয় জনতা পার্টি-র অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ অরুণ জেটলি। বিগত দীর্ঘ সময় যাবৎ শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি। এমনকি, নিজের শারীরিক দুর্বলতার কারণে চলতি বছর ২০১৯-এ লোকসভা নির্বাচনেও প্রার্থী হতে চাননি তিনি।

সম্প্রতি বেশ কিছুদিন যাবৎ শারীরিক অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ার কারণে বিশেষ চিকিৎসার অধীনে ছিলেন জেটলি। কিন্তু তাও শেষ রক্ষা করা গেলনা। ইহলোক থেকে চিরকালের মতো বিদায় নিয়েছেন অরুণ জেটলি।

একারণে গত রবিবার, ২৫শে আগস্ট নিগমবোধ ঘাটে জেটলির শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হলো। ওই দিন নিগমবোধ ঘাটে ভারতীয় জনতা পার্টি-র বহু নেতা, কর্মী’দের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। উপস্থিত ছিলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়ও।

কিন্তু বিস্ময়ের ব্যাপার হল, এই দিন ঘাটে উপস্থিত ব্যক্তিদের মধ্যে একইসাথে ১১ জনের মোবাইল চুরি হয়ে যায়। জেটলি’র শেষকৃত্য উপলক্ষ্যে অসংখ্য লোকের সমাগম হওয়ায় সুস্থ হয়ে দাড়ানোর উপায় ছিলনা, আর এই সুযোগেই মোবাইল’গুলি চুরি করে নেওয়া হয়। এই মোবাইল চুরি’র ভুক্তভোগী’দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় এবং পতঞ্জলির মুখপাত্র এস কে তিজারাওয়ালা।

একারণে অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হয়েছেন এস কে তিজারাওয়ালা। সামাজিক গণমাধ্যমে পোস্ট করা একটি টুইটে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং দিল্লী পুলিশ’কে ট্যাগ করে তিনি সমস্ত বিষয়টি বিস্তার জানিয়েছেন। টুইটে তিনি লিখেছেন, “যখন আমরা অরুণ জেটলি জিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাচ্ছি, যে ফোন থেকে এই ছবিটি তুলেছি, সেটিও আমায় শেষ বিদায় জানায়। শ্মশান ঘাটকে লোকজন ছাড়ছে না, ভিড়ের সুযোগ নিয়ে চুরি করছে, এটা খুবই দুঃখের।”

মন্তব্য
Loading...