সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

ল্যান্ডলাইন চালু করা হলো কাশ্মীর উপত্যকায়

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: চলতি বছর ২০১৯ এর ৫ই আগস্ট তারিখে ভারত সরকার কতৃক ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ এবং ৩৫এ অনুচ্ছেদ দুটি বাতিল করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকেই জম্মু ও কাশ্মীর দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত হয়। ভারত সরকারের এমন সিদ্ধান্তের ফলে ব্যপক পরিমাণে ক্ষুব্ধ হয় প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তান। একারণে বর্তমানে কাশ্মীর উপত্যকার শান্তি ভাঙনের পূর্ণ প্রচেষ্টা চালায় পাকিস্তান।

ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকবার ভারত-পাকিস্তান নিয়ন্ত্রণরেখায় গুলিবর্ষণ ঘটে গেছে, তাতে দুই দেশেরই বেশ কিছু ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু ভারত সরকারের তরফ থেকে জানানো হয় যে, কাশ্মীর উপত্যকায় শান্তি স্থাপনের পূর্ণ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে ভারতীয় প্রশাসন।

ইতিপূর্বে জম্মু-কাশ্মীর এর শ্রীনগর এলাকায় একইসাথে বহু প্রাইমারি স্কুল পুনরায় চালু করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু উপত্যকার দমন-নিপীড়ন এর কারণে সেই সকল স্কুলে তেমন পরিমাণে ছাত্র-ছাত্রী’দের সমাবেশ ঘটেনি।

ভারতের বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কতৃক সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের বিবৃতি ঘোষণার পর এতদিন পর্যন্ত জম্মু-কাশ্মীর এর সাথে বহির্জগতের কোনও যোগাযোগ ছিলনা। কিন্তু সম্প্রতি উপত্যকার ল্যান্ডলাইন পরিষেবা চালু করা হলো প্রশাসনের তরফ থেকে।

উল্লেখ্য, গত ২৪শে আগস্ট, শনিবার ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী’কে শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে দিল্লী’তে ফেরত পাঠানো হয়। একারণে ব্যপক অসন্তুষ্ট হয়েছেন রাহুল গান্ধী জানান, জম্মু-কাশ্মীর এর পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয়।

মন্তব্য
Loading...