Ultimate magazine theme for WordPress.

অতিরিক্ত ডিম না ধূমপান ! কোনটি বেশী ক্ষতিকর

অতিরিক্ত ডিম খাওয়ায় উপকার তো হয়ই না, বরং সেটি ধূমপানের থেকেও বেশী ক্ষতি করে মানব শরীরে ।

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ডিম আমাদের খাদ্য তালিকায় অন্যতম একটি স্থান দখল করে রেখেছে । এতদিন আমরা শুনে এসেছি প্রতিদিন ডিম খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল । তবে গবেষণায় উঠে এসেছে অপর এক চমকপ্রদ তথ্য, যা থেকে জানা যাচ্ছে অতিরিক্ত ডিম খাওয়ায় উপকার তো হয়ই না, বরং সেটি ধূমপানের থেকেও বেশী ক্ষতি করে মানব শরীরে ।

জার্নাল অব অ্যাথেরসক্লেরোসিস রিসার্চ নামের একটি গবেষণা সংস্থা সম্প্রতি তাদের গবেষণায় বলেছেন এই স্বাস্থ্যকর ডিমেই নাকি ক্ষতি ! গবেষকরা  জানান, দীর্ঘদিন গবেষণা করে তারা এমন সিদ্ধান্তে এসেছেন।তাদের দাবী প্রতিদিন অতিরিক্ত ডিম খেলে মানব শরীরে সিগারেটের থেকেও বেশী ক্ষতি সাধিত হয় ।  তাদের তথ্য অনুযায়ী, বেশি ডিম খেলে শরীরে কোলেস্টরেলের মাত্রা বেড়ে যায় ফলে ভবিষ্যতে সেটি হৃদরোগের কারণ হতে পারে।

শুধু মাত্র হৃদরোগ নয়, অরিতিক্ত ডিম খাওয়ার ফলে মানব শরীরে  আর্থ্রাইটিসের সম্ভাবনাও দেখা যায় বেশি। অনেকের ধারনা  ডিমের সাদা অংশ কুসুমের চেয়ে বেশী উপকারী । এছাড়া ডিমের কুসুম খাওয়া ভালো নয়। তাদের এ তথ্যকে একেবারে উড়িয়ে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন বিজ্ঞানী । তাদের মতে, ডিমের যে কোনো অংশই অতিরিক্ত খাওয়া উচিত নয়। তাঁরা আরও জানিয়েছেন,  কাঁচা ডিমের তুলনায় ওমলেট, সেদ্ধ কিংবা পোচ খেলে ক্ষতির সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

তবে পরিমিত ডিম খেলে অনেক উপকার পাওয়া যায় । ডিমে মোটামুটি এনার্জি থাকে ১৪৩ ক্যালোরি,  কার্বোহাইড্রেট থাকে ০.৭২ গ্রাম , প্রোটিন থাকে ১২.৫৬ গ্রাম, ফ্যাট থাকে ৯.৫১ গ্রাম,  ফসফরাস থাকে ১৯৮ মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম ১৩৮ মিলিগ্রাম, জিঙ্ক থাকে ১.২৯ মিলিগ্রাম । এই গুলি প্রতিটিই আমাদের শরীরের জন্য উপকারি । এছাড়া ডিমে ভিটামিন বি এবং এ থাকে । তাছাড়া ডিমে থাকা কেরোটিনয়েড আর ল্যুটেন । বয়স হয়ে গেলে চোখের এক বড় সমস্যা,ম্যাকুলার ডিজেনারেশন হওয়ার সম্ভাবনা কমায়।ছানিও কম হওয়ার দিকে থাকে। ডিমের ভিটামিন ডি যা আমাদের পেশি মজবুত করতে সাহায্য করে ।

এবার আপনিই ঠিক করুন ঠিক কতটি করে ডিম খাবেন ?

মন্তব্য
Loading...