সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

হাগিবিস এক ঘূর্ণিঝড়ের নাম; তছনছ হয়ে গেল জাপান, এখনও পর্যন্ত মৃত ১১

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ “হাগিবিস” নামটা বাংলা ভাষায় কেমন যেন একটু খটোমটো । কিন্তু হলে কি হবে ? এটা একটা ঘূর্ণিঝড়ের নাম আর এই ঝড়ের কবলে পড়ে বাস্তবে তছনছ হয়ে গিয়েছে টেকনোলজির দেশ জাপান । আগে থেকেই জানা ছিল যে ঘূর্ণিঝড় আসছে । সেই মতই শনিবার রাতে জাপানে আছড়ে পড়ল শতাব্দীর ভয়ঙ্করতম ঘূর্ণিঝড় হাগিবিস । এই ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে তছনছ হয়ে গিয়েছে জাপান। ইতিমধ্যেই ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

হাগিবিসের কবলে পড়ে ঘরছাড়া হাজারের বেশি মানুষ । সরকারের পক্ষ থেকে তাঁদের ত্রাণশিবিরে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে । ঘূর্ণিঝড়ের প্রকোপ এমনই ভয়াবহ হয়েছে যে, এখন উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে সেনাবাহিনী । এই ঘূর্ণিঝড়ের ফলে জাপানের বেশ কিছু নদীতে জলের পরিমাণ বেড়ে গিয়েছে অনেকখানি । সেইসঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় ধস নেমেছে। ফলে জনজীবন ব্যাহত হয়েছে। সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জাপানের নাগানো শহর । সেখানে চিকুমা নদীর জল শহরের মধ্যে ঢুকে পড়েছে। ফলে বহু বাড়িঘর ভেঙে পড়েছে। কিছু কিছু জায়গায় নদীর জল প্রায় দোতলা সমান উঁচু হয়ে গিয়েছে।

পরিস্থিতি সামাল দেবার জন্য জাপানের সেনাবাহিনীকে নামানো হয়েছে । তারা  এই অবস্থায় উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ।দুর্গম এলাকাগুলিতে  সেনাবাহিনী হেলিকপ্টারের সাহায্য নিচ্ছে । হেলিকপ্টারের সাহায্যে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে তারা। বেশিরভাগ জায়গায় দেখা যাচ্ছে বাড়ির ছাদে মানুষ দাঁড়িয়ে রয়েছেন। তাঁদের হেলিকপ্টারে করে উদ্ধার করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে এখনও পর্যন্ত নাগানো শহরে ৪২৭টি বাড়ি থেকে ১৪১৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে এখনও কতগুলো বাড়ি ভেঙে পড়েছে বা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার পরিমাণ জানা যায়নি। কারণ এখনও জল রয়েছে। ফলে একাধিক জায়গায় যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। জল কমলে তবেই ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।হাগিবিস আছড়ে পড়ার আগে থেকেই জাপান জুড়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। গোটা দেশজুড়ে অসংখ্য ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে। সেগুলিকে সচল রাখা হয়েছে। শনিবার থেকেই দেশের বেশিরভাগ বিমানবন্দর থেকে বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। রেল পরিষেবাও বন্ধ রয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ প্রথম স্থলভাগে আছড়ে পড়ে হাগিবিস। ২০০ কিলোমিটারের বেশি গতিবেগের ঝড় তছনছ করে দেয় চারদিক। ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে রাগবি বিশ্বকাপের ম্যাচও বাতিল করতে হয়েছে।আজও হাগিবিসের দাপট আছে জাপানে । কিন্তু আশার খবর হল,  দুর্বল হয়ে পড়ছে এই ঘূর্ণিঝড়। ফলে সোমবারের পর থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্য
Loading...