ভ্যালেন্টাইন্স দিবসে অফিসের মধ্যেই মধুর পরিণয় মহাকুমা শাসক এবং ডিএসপি অফিসারের

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ কথায় বলে ‘মিয়াঁ বিবি রাজি, তো ক্যায়া করেগা কাজী’ । হ্যাঁ, ছেলে মেয়ে দুজনেই যদি রাজি থাকে তাহলে যে কোনদিনই বিয়ে করা যায় । এবার ভালবাসার দিনে অফিসের মধ্যেই বিয়ে সেরে নিলেন উলুবেড়িয়ার মহাকুমা শাসক । কনে  আইপিএস এবং  বর্তমানে বিহারে পোস্টিং  ।

১৪ই ফেব্রুয়ারি প্রেম দিবস । তার উপর আজ ১লা ফাল্গুন । শীতকে বিদায় জানিয়ে বসন্তকে আহ্বান করার দিন । এমন দিনে বিয়ে ! সত্যি ভাবাই যায় না । বর  আইএএস পদমর্যাদার  অফিসার উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক তুষার সিংলা। আর কনে, নভজ্যোৎ সামিয়াল, তিনিও কম নন, আইপিএস অফিসার । বর্তমানে বিহারে অ্যাডিশনাল এসপির দায়িত্ব সামলাচ্ছেন ।

জানা গেছে এই দুই অফিসারের পরিচয় বছর খানেক আগেই । দুজনেরই বাড়ী পাঞ্জাবে । উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক তুষারের বাড়ি পঞ্জাবের বার্নালায় আর নভোজিৎ-এর বাড়ী পঞ্জাবেরই গুরুদাসপুরে । তুষার  ২০১৫ ব্যাচের পশ্চিমবঙ্গ ক্যাডারের  আইএএস অফিসার, অন্য দিকে নভজ্যোৎ সামিয়াল ২০১৮ ব্যাচের আইপিএস, বিহার ক্যাডারের ।  আজ মহকুমাশাসক তুষারের বাংলোয় ম্যারেজ রেজিস্ট্রারের উপস্থিতিতে বিয়ে সারলেন  তাঁরা । বিয়ের অনুষ্ঠান পরে তাদের নিজেদের রাজ্য পাঞ্জাবে হবে ।

তাদের পরিচয় কিভাবে হয় জিজ্ঞাসা করায়  মহকুমাশাসক বললেন, “আমরা দুজনেই পঞ্জাবের বাসিন্দা। কাজের সূত্রে বছর খানেক আগে আমাদের পরিচয় হয়েছিল। সেই থেকে ঘনিষ্ঠতা। জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্তও তারপরে।” ফের মহাকুমা শাসককে  ‘পশ্চিমবঙ্গ ও বিহারের দূরত্ব অতিক্রম করে সংসার করা যাবে তো?’ এই প্রশ্ন করা হলে মুচকি হেসে উলুবেড়িয়ার মহাকুমা শাসক উত্তর দেন,  “চলতি বছরে বিহারের ভোট। ২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গের ভোট। এই সব ভোট মিটে গেলে ম্যাডামকে পশ্চিমবঙ্গ ক্যাডারের নিয়ে আসার চেষ্টা করব।”

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...