সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

হৃষিকেশের লক্ষ্মণ ঝুলায় দাঁড়িয়ে নগ্ন হলেন বিদেশী যুবতী, গ্রেপ্তারের পর জামিনে মুক্ত

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ পুণ্যভূমি উত্তরাখণ্ডে হৃষিকেশের এক বিদেশী যুবতীর ছবি তোলা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে । জানা গেছে, উত্তরাখণ্ডে হৃষিকেশে গঙ্গার ওপর তৈরি বিখ্যাত ব্রিজ লছমন ঝুলা বা লক্ষ্মণ ঝুলার উপর নগ্ন হয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন একজন ফরাসী যুবতী ।খবর পেয়ে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করলেও পরে জামিনে মুক্ত করা হয় ।

স্থানীয় সুত্র থেকে জানা গেছে, উত্তরাখণ্ডে হৃষিকেশে অবস্থিত লক্ষ্মন ঝুলার উপরে নগ্ন হয়ে বছর ২৭ শের একজন ফরাসী যুবতী ভিডিও শ্যুট করেছেন । পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর প্রকাশ পায় ।  স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর গজেন্দ্র সাজওয়ান ২৫ অগস্ট থানায় ওই মহিলার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ উক্ত ফরাসী যুবতীকে ন্যুড ভিডিও শুটিং করার জন্য গ্রেপ্তার করে ।

পুলিশ তদন্তে নেমে জানতে পারে, সোশ্যাল মিডিয়া মারফৎ খবর পেয়ে কাউন্সিলর যে অভিযোগ করেছে সেটি সত্যি । খোঁজ নিয়ে পুলিশ হৃষিকেশের একটি হোটেলে অভিযুক্ত ফরাসী যুবতীর সন্ধান পায় । জিজ্ঞাসাবাদ করলে, তিনি ভিডিও শ্যুটের কথা স্বীকার করে নেন । তবে হৃষিকেশের মত তীর্থস্থানে এই ধরনের কাজ করা আইন বিরুদ্ধ সে কথা তিনি জানতেন না বলে জানান ।

পুলিশ অভিযুক্ত বিদেশিনীকে গ্রেপ্তার করে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে, উনি নেকলেসের ব্যবসা করেন। সেই ব্যবসার প্রোমশনের জন্যই এই ভিডিও রেকর্ড করিয়েছিলেন তিনি। শুধু ওই ব্রিজে না, নিজের রুমেও একারণে একাধিক  ছবি তোলেন তিনি। পুলিশ সুত্রে খবর, প্রথমে  ওই বিদেশির ফোন প্রথমে আটক করে ওই বিতর্কিত ভিডিও ও ছবি ডিলিট করে দেওয়া হয়। পরে জামিনে ওই মহিলাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

হৃষিকেশের মত একটি তীর্থস্থানে এই ধরনের ঘটনা একেবারেই অনভিপ্রেত ছিল । স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, উক্ত ফরাসী মহিলা বেশ কিছু সময় ধরেই ন্যুড ভিডিও শ্যুট করেছিলেন । অনেকেই ভিডিও শ্যুট করতে দেখলেও কেন বাঁধা দেয়নি সেটাই অবাক করার বিষয় ।

মন্তব্য
Loading...