Ultimate magazine theme for WordPress.

হিন্দু ধর্মের ইতিহাস, উৎপত্তি, ব্যাখ্যা

হিন্দু ধর্ম পৃথিবীতে যত ধর্ম রয়েছে তাঁর মধ্যে হিন্দু ধর্ম সবচেয়ে প্রাচীন বলে আমরা জানি। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষেরই জানা নেই যে হিন্দু ধর্ম কথা থেকে এসেছে? কে উৎপত্তি করেছে হিন্দু ধর্ম? কবে উৎপত্তি হয়েছে হিন্দু ধর্ম এর? অনেকের মনেই এমন প্রশ্ন এসে থাকলেও উত্তর অজানাই রয়ে গিয়েছে।

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ- আমাদের দেশ ভারতবর্ষে ১৩০ কোটি হিন্দুর বসবাস। হিন্দু ধর্ম পৃথিবীতে যত ধর্ম রয়েছে তাঁর মধ্যে হিন্দু ধর্ম সবচেয়ে প্রাচীন বলে আমরা জানি। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষেরই জানা নেই যে হিন্দু ধর্ম কথা থেকে এসেছে? কে উৎপত্তি করেছে হিন্দু ধর্ম? কবে উৎপত্তি হয়েছে হিন্দু ধর্ম এর? অনেকের মনেই এমন প্রশ্ন এসে থাকলেও উত্তর অজানাই রয়ে গিয়েছে। হিন্দু ধর্ম সম্পর্কে একেক জনের একেক রকম মতভেদ আছে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক হিন্দু ধর্মের ইতিহাস।

হিন্দু ধর্মের উৎস হল বৈদিক ধর্ম। কিন্তু কীভাবে বৈদিক ধর্ম থেকে হিন্দু ধর্মের উৎপত্তি  হয়েছে জানেন কি? যীশুখ্রীস্টের জন্মের ৫০০০ বছর পূর্বে বৈদিক যুগের সাহিত্য সংগঠন সনাতন ধর্ম থেকেই হিন্দু ধর্মের সৃষ্টি। কারণ বৈদিক ধর্মের সাথে হিন্দু ধর্মের অনেকাংশে মিল দেখা যায়। যেমন দেবতা এবং দেবী। বৈদিক যুগের দেবতা হিসেবে পূজিত হতেন সূর্য। এখনকার হিন্দু ধর্মেও সূর্যদেব কে দেবতা রুপে পূজা করা হয়ে থাকে।

সামাজিক এবং ধর্মীয় ক্ষেত্রেও অনেক মিল রয়েছে বৈদিক ধর্মের সাথে হিন্দু ধর্মের। বৈদিক যুগের বৈবাহিক নিয়ম, পৈতের অনুষ্ঠান, অন্নপ্রাশন, শ্রাদ্ধানুষ্ঠান সমস্ত নিয়মেই এখনকার হিন্দু ধর্মের বিবাহ, উপনয়ন, শ্রাদ্ধ পালিত হয়। এছাড়াও ব্রাহ্মনদের ত্রিসন্ধ্যা মন্ত্র উচ্চারণ বৈদিক ধর্মের থেকেই প্রাপ্ত। নতুন হিন্দু ধর্মের যে প্রবর্তক ছিলেন তিনি হলেন শঙ্করাচার্য। ইনি ছিলেন একজন বেদান্তক।

ঋগ্বেদের সময়ে সমাজ চারটি শ্রেণীতে বিভক্ত ছিল। ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয়, বৈশ্য, শূদ্র। অন্যদিকে হিন্দু ধর্মের ক্ষেত্রেও সমাজে চারটি শ্রেণীর ভাগ রয়েছে। হিন্দু ধর্মশাস্ত্রের সমস্ত ক্ষেত্রেই বেদ কে প্রাধান্য দেওয়া হয়ে থাকে। বৈদিক জুগেও বেদ কে প্রাধান্য দেওয়া হত। বৌদ্ধ এবং জৈন ধর্মের কিছু কিছু প্রভাব যেমন বৈদিক ধর্মে বিশেষতা দান করেছে, তেমন হিন্দু ধর্মের মতোই বৌদ্ধ ধর্মেও মূর্তি পূজা হয়ে থাকে। হিন্দু ধর্মের মানুষ মারা গেলে যে আত্মা থাকে তা অবিনশ্বর, আত্মাকে সৃষ্টি বা ধ্বংস করা যায়না তেমনই বৈদিক যুগেও এই ধারণা ছিল।

তবে হিন্দু ধর্মে যে তেত্রিশ কোটি দেবতা আছেন তাদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ দেবতা বা শ্রেষ্ঠ দেবীর উল্লেখ আছে। কিন্তু বৈদিক যুগে সকল দেব দেবীর সমান ক্ষমতা ছিল বলে জানা যায়। বৈদিক যুগে যজ্ঞ শ্রেষ্ঠ পূজা ছিল যেখানে হিন্দুদের মূর্তিপূজাই শ্রেষ্ঠ পূজা হিসেবে বিবেচিত হয়।

মন্তব্য
Loading...