সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

গুটকাপ্রেমীদের জন্য দুঃসংবাদ; ৭ই নভেম্বর থেকে বাংলায় নিষিদ্ধ হতে চলেছে গুটকা ও তামাকজাত পানমশলা

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ পশ্চিমবঙ্গে  আগামী একবছরের জন্য নিষিদ্ধ হতে চলেছে গুটকা এবং তামাক জাতীয় পান মশলার উৎপাদন, গুদামজাত করন এবং বিক্রি । আগামী ৭ই নভেম্বর থেকে  পশ্চিমবঙ্গ সরকার  আগামী এক বছরের জন্য রাজ্যে গুটকা এবং পান মশলার উত্‍পাদন এবং বিক্রয়ের ওপর পুরোপুরিভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে । পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় একটি নির্দেশিকা জারি করেছেন, যেখানে বলা হয়েছে, গোটা রাজ্যে গুটকা ও পানমশলা তৈরি, সংরক্ষণ, বিতরণ ও বিক্রয় সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হল।

তামাকের ক্ষতিকর দিকগুলি সম্পর্কে সাবধান এবং সতর্কীকরণ বার্তা তামাকজাত পণ্যের মোড়কে লেখা থাকলেও মানুষ এটি খাওয়া থেকে বিরত থাকছে না । এমনকি অধিকাংশ মানুষ এই নেশাগুলি থেকে বাইরের মুক্ত জীবনে ফিরে আসতে পারছে না । সূত্রের খবর, তামাকজাত দ্রব্যের ব্যবহার রুখতে এবং এর ক্ষতিকারক প্রভাব থেকে মানুষকে মুক্ত করতে সরকারের পক্ষ থেকে   এমন কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে । সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে, কেবল প্রাপ্তবয়স্করাই নয় অপ্রাপ্তবয়স্করাও গুটকা এবং তামাকজাত পান মশলা নিয়মিত খাচ্ছে ।উল্লেখ্য ইতিপূর্বে  মমতা বন্দোপাধ্যায়  ২০১৩ সালে এক বছরের জন্য গুটকা ও পান মশলার ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল । কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞায় বিশেষ কাজ হয়নি ।

পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি প্রতিবেশি রাজ্য বিহারেও  পান মশলা এবং গুটকা বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। বিহারে নিতিশ কুমার সরকার  এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন । পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আদেশ অনুসারে, ভারত সরকারের খাদ্য সুরক্ষা আইনের অধীনে এইসব পণ্যের উত্‍পাদন, সঞ্চয়, বিতরণ, পরিবহন এবং বিক্রয় সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করা হবে ।তামাক এবং তামাকজাত দ্রব্য বিশেষ করে  গুটকা ও তামাক সেবনের কারণে বিপুল সংখ্যক মানুষ ক্যান্সারের মতো রোগে ভুগছেন। সরকার কড়া হাতে এবং   নজরদারির মাধ্যমে এই পণ্য নিয়ন্ত্রন করতে পারলে  এই জাতীয় পণ্যগুলির খারাপ প্রভাব থেকে অনেকেই বেরিয়ে আসতে পারবে ।

মন্তব্য
Loading...