অ্যাপেল প্রেমীদের জন্য সুখবর, বাজারে আসতে চলেছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন অ্যাপেল আইফোন 11

টেক ডেস্ক : এই কথা জোর গলায় কেউ অস্বীকার করতে পারবে না যে অ্যাপেল প্রেমীরা কখনো পয়সার দিকে তাকিয়ে অ্যাপেল ফোন কিনতে জান  না । সম্প্রতি জানা গেছে,  বাজারে আসতে চলেছে অ্যাপেল এর আইফোন- 11 । এই খবর বাজারে প্রকাশ পাওয়া মাত্রই অ্যাপেল প্রেমীদের মধ্যে একটা উন্মাদনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে ।  সোশ্যাল মিডিয়া,  ইউটিউব সব জায়গায় খোঁজ খবর চলছে কি থাকতে পারে বাজারে অ্যাপলের  যে নতুন আইফোন বেরোচ্ছে তাতে ।

এর আগে অ্যাপেলের আইফোন  আইফোন ১০এস (এক্সএস) ১০এস এবং ১০এস ম্যাক্স  বাজারে বেরিয়েছিল । কিন্তু আপেল এর তরফ থেকে জানা যাচ্ছে নতুন যে আইফোন বেরোচ্ছে,  তা ধারে এবং ভারে অন্যান্য অ্যাপেলের আইফোন এর মডেলগুলিকে অনায়াসে ছাপিয়ে যাবে ।

আপেল সূত্র থেকে জানা গেছে,  চলতি মাসের চলতি বছরের সেপ্টেম্বর এই মডেলের  প্রদর্শনী করা হবে এই নতুন মডেলের । তবে অ্যাপেলের আইফোন  11 বাজারে আসতে আসতে আগামী বছরের মাঝামাঝি সময় লেগে যাবে । একবার দেখে নেওয়া যাক কি থাকছে এই নতুন প্রযুক্তির আইফোনে –

আইফোন ১১-এর নতুন মডেলে থাকতে পারে তিনটি রিয়ার ক্যামেরা। মডেলের ডিজাইন এক্সএসের মতোই হতে পারে অনেকটা। ডুয়াল সিম, ই-সিম, ‘লিকুইড প্রুফ’ মডেলে থাকবে ৩ডি চমক। ৬.১ থেকে ৬.৫ ইঞ্চি এলইডি স্ক্রিনের এই মডেলের স্টোরেজ ক্যাপাসিটি ৬৪ জিবি থেকে শুরু, সর্বোচ্চ ২৫৬ জিবি এবং ৫১২ জিবি।ইউএসবি-সি পোর্ট ও আইওএস-১৩ সিস্টেমের এই ফোনের সুরক্ষাকবচ হবে অনেক বেশি মজবুত। এতে থাকতে পারে এ-১৩ চিপ, ডি৪২ স্ক্রিন, ফেস আইডি সিস্টেম। ১২ মেগাপিক্সেলের তিনটি রিয়ার ক্যামেরায় রয়েছে ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স। এর আপডেটেড সেন্সর স্লো মোশনের ছবিও ক্যাপচার করতে সক্ষম।

এর আগে ১০এস এবং ১০এস ম্যাক্স, দু’টি ফোনই ‘লিকুইড-প্রুফ’। অ্যাপলের দাবি, বিয়ার ঢেলে পরীক্ষা করা হয়েছিল। নতুন মডেলও একই রকম। ১০এস ম্যাক্স দাম শুরু ১ লক্ষ ৫ হাজার টাকা থেকে। ১০আর-এর দাম ৭০ হাজার টাকা থেকে। আইফোন ১১-এর দাম কত হবে সেটা নিয়ে সঠিক ভাবে এখনও কিছু জানানো হয়নি সংস্থার তরফে। তবে বাজারে ইতিমধ্যেই গুঞ্জন শুরুটা ৯৪ হাজার থেকে হতে পারে। ভারতের বাজারে দাম উঠতে পারে এক লক্ষেরও বেশি। অতএব পকেট ভরেই যে এই ফোন কিনতে নামতে হবে, সেটা এর মধ্যেই টের পেয়ে গেছেন আইফোন-প্রেমীরা।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য