সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

পালাতে গিয়েই কি গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে এনকাউণ্টার ! উঠে আসছে নানা তথ্য

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ গতকাল হেড লাইন ছিল গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে গ্রেপ্তার । আজ সকাল না হতেই ফের হেড লাইন, পালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে এনকাউণ্টারে মারা গেছে বিকাশ দুবে । এত দ্রুত সবকিছু ঘটে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, কি এমন হয়েছিল যে গ্যাংস্টার বিকাশ দুবেকে এনকাউণ্টার করতে বাধ্য হল পুলিশ !

পুলিশের তিনটে স্করপিও গাড়ির একটি কনভয়ে দুবেকে কানপুরে (Kanpur) নিয়ে আসা হচ্ছিল। তাদের মধ্যে একটি গাড়িই শুক্রবার সকালে জাতীয় সড়কের ধারে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে যায়। মনে করা হচ্ছে ওই গাড়িতেই দুবে ছিল।মধ্যপ্রদেশ থেকে উত্তর প্রদেশ নিয়ে যাবার পথে জানা গেছে প্রথমে সাংবাদিকদের এক সাথে আসতে দেওয়া হয়নি । পরে অনুমতি দেওয়া হয় । দেখা যায় বিকাশ দুবেকে নিয়ে যাবার সময় পুলিশের কনভয়ের একটি গাড়ি উল্টে পড়ে আছে । সেই সুযোগে বিকাশ দুবে পুলিশের বন্দুক ছিনিয়ে নিয়ে পালাতে চেষ্টা করলে পুলিশ এনকাউণ্টার করে তাকে খতম করে ।

গতজাল বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার করা হয় কুখ্যাত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবেকে

উল্লেখ্য, গতকালই আট পুলিশ খুনের দায়ে অভিযুক্ত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবেকে বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদেশ থেকে গ্রেফতার করা হয় । এরপর আজ সকালে তাকে মধ্যপ্রদেশ থেকে পুলিশ পাহারায় উত্তরপ্রদেশের দিকে রওনা হতে দেখা যায় । সাংবাদিকরা জানিয়েছে, পথে পুলিশ তাদের একসাথে আসতে বাধা দেয় । পরে সাংবাদিকদের আসার অনুমতি দেওয়া হয় । সাংবাদিকরা সেখানে গিয়ে দেখে কনভয়ের একটি গাড়ি দুর্ঘটনায় উল্টে পড়ে আছে । এদিকে গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে বুকে পুলিশের গুলি খেয়ে আহত ।

পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়,  গাড়ি উলটে যাওয়ার পরেই এক পুলিশ কর্মীর পিস্তল নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে বিকাশ দুবে। পুলিশের দিকে সে গুলিও ছোঁড়ে বলা দাবি করা হয়েছে। এরপরেই পালটা গুলি চালায় পুলিশ। পুলিশের গুলিতে আহত হয় বিকাশ দুবে। তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসকেরা।

ঘটনা যাই হোক না কেন, কুখ্যাত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের নামে  গত সপ্তাহে উত্তর প্রদেশের কানপুরে ৮ পুলিশ কর্মী হত্যার দায় রয়েছে । তার পর থেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছিল এই  কুখ্যাত দুষ্কৃতি।বৃহস্পতিবার মধ্য প্রদেশের উজাইনের মহাকাল মন্দিরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের আগে বিকাশ দুবেকে শেষবার দেখা গিয়েছিল হরিয়ানায়। সেখান থেকে সে কীভাবে মধ্যপ্রদেশ গেল তা এখনও জানা যায়নি। তাঁর বাড়ি কানপুর থেকে ৬০০ কিমি দূরে গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। তার নামে খুন, অপহরণ, দাঙ্গা, জোরজলুম করে টাকা আদায় সহ মোট ৬০ টি মামলা দায়ের রয়েছে।

মন্তব্য
Loading...