তবে কি গান্ধীযুগের বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে?

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: চলতি বছরে সম্পন্ন হয়ে যাওয়া লোকসভা নির্বাচন ২০১৯-এ কংগ্রেসের বেহাল অবস্থার কারণে সভাপতির পদে ইস্তফা দেন রাজীবপুত্র রাহুল গান্ধী। এরপর কংগ্রেসের বহু প্রবীণ নেতা বারংবার ইস্তফাপত্র ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য তাঁর কাছে আর্জি জানালেও নিজের সিদ্ধান্তে অটল রাহুল। শেষে দলের সুরক্ষা বিনষ্ট হচ্ছে দেখে দলের একাংশ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে এই পদ দিতে চান। এমনকি সনিয়া গান্ধীকেও আবেদন করা হয়। কিন্তু রাহুল গান্ধী কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটিকে স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেন, গান্ধী পরিবারের কাউকে যেনো সদস্যপদে মনোনীত না করা হয়। তাঁর সিদ্ধান্তে সহমত জানিয়েছেন সনিয়া এবং প্রিয়াঙ্কাও।

একারণে গত দু’মাস যাবৎ টালমাটাল অবস্থায় রয়েছে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দল। অবশেষে এবার সভাপতি মনোনয়নে উঠে এলো দলিত নেতা মুকুল ওয়াসনিক। যথেষ্ট প্রশাসনিক অভিজ্ঞতা থাকার কারণেই প্রাক্তন মন্ত্রী মুকুল ওয়াসনিককে ৫৯ বছর বয়সে কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্ব দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে। অন্তত আগামী সাংগঠনিক নির্বাচনের আগে পর্যন্ত মুকুলকে এই দায়িত্ব পালন করতে হতে পারে। সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার পর দলকে কতটা জাগিয়ে তুলতে পারেন মুকুল ওয়াসনিক, সেটাই এখন দেখার বিষয়।

তবে কি সত্যিই এবার গান্ধীযুগের অবসান ঘটবে? নাকি এর পেছনে লুকিয়ে রয়েছে ভবিষ্যৎ জয়ের গোপন কোনও রাজনৈতিক অভিসন্ধি?

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...