প্রাক্তন অর্থ মন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরমের জামিন মঞ্জুর ঘোষণা করল শীর্ষ আদালত

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ সিবিআই (CBI) এর দায়ের করা আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল প্রাক্তন অর্থ মন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে । মঙ্গলবার একলক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে চিদাম্বরমের জামিন মঞ্জুর করল সুপ্রিম কোর্ট ।

তবে জামিন পেলেও এখনই স্বস্তির কিছু নেই এই প্রবীণ কংগ্রেস নেতার । কারন সুপ্রিম কোর্ট ব্যক্তিগত বন্ডে চিদাম্বরমের জামিন মঞ্জুর করলেও আগামী ২৪শে অক্টোবর পর্যন্ত ইডি-র  হেফাজতে থাকতে হবে প্রাক্তন অর্থ মন্ত্রীকে । উল্লেখ্য, আইএনএক্স দুর্নীতি মামলায় গত ২১শে আগস্ট পি চিদম্বরমকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই । শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত পিটার ও ইন্দ্রাণী মুখার্জির সংস্থাকে অন্যায় ভাবে বিদেশি অনুদান পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ ছিল তাঁর বিরুদ্ধে । শুধু পি চিদাম্বরম নন,  এই মামলায় চিদাম্বরমের ছেলে কার্তির বিরুদ্ধেও চার্জশিট গঠন করেছে সিবিআই ।

গ্রেপ্তার হবার পর, এর আগে গত ৩০শে সেপ্টেম্বর দিল্লি হাইকোর্ট-এ জামিনের আবেদন করা হয়েছিল । কিন্তু আদালত চিদাম্বরমের জামিনের আর্জি খারিজ করে দেয়। শীর্ষ আদালতের বিচারপতি আর ভানুমতীর নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ মঙ্গলবার সেই রায় খারিজ করে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে ব্যাক্তিগত বন্ডের বিনিময়ে জামিন মঞ্জুর করেন ।

উল্লেখ্য,  বিশেষ আদালতের নির্দেশে গত সপ্তাহেই তিহার জেল থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় পি চিদাম্বরমকে। এই মুহূর্তে ইডি-র হেফাজতে রয়েছেন তিনি । তবে, আদালত জানিয়েছেন, ই ডিকে  জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিলেও, চিদাম্বরম বাড়ির খাবার খেতে পারবেন ।তবে ই ডির হেপাজতে বেশ কিছু বিশেষ সুযোগ সুবিধা পাবেন তিনি ।  সেখানে আলাদা কুঠুরিতে পশ্চিমি ধাঁচে তৈরি শৌচাগার ব্যবহার করার সুবিধা পাচ্ছেন চিদাম্বরম। পাচ্ছেন নিজের চশমা এবং ওষুধও । তবে, শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রের আবেদন জানালেও, তা খারিজ করে দিয়েছে ইডি । প্রতিদিন আধ ঘণ্টার জন্য পরিবারের লোকজনের সঙ্গে দেখা করতে পারছেন তিনি। এই কারনে,  ইডির হেফাজতে থাকাটা প্রবীণ কংগ্রেস নেতার কাছে জেলবন্দির নামান্তর হচ্ছে না ।

জানা গিয়েছে, আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় জামিন পেলেও, চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে অন্য যে সমস্ত মামলা চলছে, শীর্ষ আদালতের এই রায়ের পর সেগুলি থেকেও কোনওরকম ছাড়ের সম্ভাবনা নেই। এমনকী, এই পরিস্থিতিতে তিনি দেশের বাইরেও যেতে পারবেন না । তদন্তের স্বার্থে যখনই ডেকে পাঠানো হবে তখনই তাঁকে হাজিরা দিতে হবে ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য