অবশেষে রাজ্যে জাঁকিয়ে পড়তে চলেছে শীত; কবে থেকে জানতে পড়ুন আবহাওয়ার খবর

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ গত বৃহস্পতিবার রাজ্যে তাপমাত্রার পারদ বেশ অনেকটা নামলেও তারপর আবারও আবহাওয়াতে গরমের প্রভাব পড়তে শুরু করে। তারফলে রাজ্যবাসীর ধারণা হয় এবার বুঝি ঠাণ্ডা আর পরবেনা। তবে রাজ্যবাসীর ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে আবহাওয়া দফতর জানালো যে, বুধবার থেকে পারদ নামতে চলেছে রাজ্যে এবং শেষ পর্যন্ত রাজ্যে পড়তে চলেছে ঠাণ্ডা।

নভেম্বরে ঠাণ্ডা একেবারে ফাঁকি দিয়েছে। তবে ডিসেম্বর পড়তে না পড়তেই বাতাসে বেশ হিমেল ভাব দেখা দিয়েছিল কিন্তু দুদিন একটু ঠাণ্ডা পরেই ফের পালিয়ে গেছে শীত। গত বছর এই সময় বেশ জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা পরে গেছিল। কিন্তু এবছর যেন আবহাওয়া খামখেয়ালীপনা করছে। কখনও ভোরের দিকে কিংবা রাতে ঠাণ্ডা পড়ছে জাঁকিয়ে আবার বেলা বাড়লেই লাগছে গরম। গত বৃহস্পতিবারকে এবারের শীতলতম দিন হিসেবে ধার্য করা হলেও তারপরই যেন আবার তাপমাত্রা আবার চড়তে থাকে ফলে বাড়তে থাকে গরম।

আবহাওয়ার যেন খামখেয়ালীপনা বেড়েই চলেছে। আর আবহাওয়ার এই খামখেয়ালীপনার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সাধারণ মানুষের অসুখ। জ্বর, হাঁচি, কাশি যেন লেগেই রয়েছে ঘরে ঘরে। তবে এই অবস্থা হয়ত বেশীদিন থাকবেনা বলে আশা করা যাচ্ছে। মনে করা হচ্ছে যে বুধবার থেকে হয়ত পারদ নামবে এবং রাজ্যবাসী শেষ পর্যন্ত হয়ত উপভোগ করতে পারবে ঠাণ্ডা। আরও জানা যাচ্ছে যে, এই গরম হাওয়ার কারণ হল আরব সাগরে সৃষ্টি হওয়া নিম্নচাপ। যার ফলে উত্তর-পশ্চিমের ঠাণ্ডা বাতাস রাজ্যে প্রবেশে বাঁধাপ্রাপ্ত হচ্ছে।

আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো যাচ্ছে যে, কদিন ভোরবেলা কুয়াশা থাকবে এবং সারা দিন আকাশ থাকবে মেঘলা। সোমবার দিনে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০.১ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং বাতাসে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ছিল ৯৭ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ছিল ৪৭ শতাংশ। তবে হয়ত বুধবার তাপমাত্রার পারদ কিছুটা হলেও কমবে বলে আশা করা গেলেও, রাজ্যে পুরোপুরি শীতের আমেজ পেতে হলে রাজ্যবাসী হয়ত আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...