জম্বু-কাশ্মীরকে কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চল ঘোষণা – প্রথম লেফটেন্যান্ট জেনারেল গিরিশচন্দ্র মুর্মু

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলুপ্ত করণের পর যে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছিল তার জট আস্তে আস্তে খুলে যাচ্ছে । ক্রমশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে সাধারন মানুষের জন জীবন । গড় ৫ই অগস্ট রাজ্যসভায় ঘোষণা করা হয়, জম্মু-কাশ্মীরকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা হবে । একটি জম্মু কাশ্মীর। অপরটি লাদাখ। সেইমতো ৩১শে অক্টোবর কেন্দ্রশাসিত জম্মু কাশ্মীরের প্রথম লেফটেন্যান্ট জেনারেল হিসাবে নিয়োগ করা হচ্ছে গিরিশচন্দ্র মুর্মুকে ।

আগামী ৩১শে অক্টোবর গিরিশচন্দ্র মুর্মুকে জম্মু কাশ্মীরের প্রথম লেফটেন্যান্ট জেনারেল হিসাবে নিয়োগ করা হচ্ছে । গিরিশচন্দ্র মুর্মু ১৯৮৫ সালের গুজরাত ক্যাডারের অফিসার ছিলেন । মোদী সরকারের খুব গুরুত্ব পূর্ণ পদে ভাল আছেন তিনি । বর্তমানে এখন তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যয় সংক্রান্ত দফতরের সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন । চলতি বছরের নভেম্বর মাসে তাঁর অবসর নেওয়ার কথা ।

অপর দিকে অপর নতুন কেন্দ্র শাসিত লাদাখের লেফটেন্যান্ট গভর্নর হচ্ছেন রাধাকৃষ্ণ মাথুর । তিনি ১৯৭৭ সালের ব্যাচের অফিসার । উল্লেখ্য । একসময় রাধাকৃষ্ণ মাথুর মুখ্য তথ্য কমিশনার ছিলেন। গত বছর নভেম্বরে তিনি অবসর নিয়েছেন । জানা গেছে গিরিশচন্দ্র মুর্মু এবং রাধাকৃষ্ণ মাথুর, দু’জনেই শপথ নেবেন আগামী বৃহস্পতিবার ।

জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যের  রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক । রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে শুক্রবার  জানানো হয়েছে জম্বু কাশ্মীরের শেষ রাজ্যপাল তথা সত্য পাল  মালিককে পাঠানো হচ্ছে গোয়ায় । তিনি সেখানকার রাজ্যপাল হবেন । ।

চলতি বছরে বিজেপি সরকার জম্বু ও কাশ্মীর নিয়ে বেশ বড় সড় পদক্ষেপ নিয়েছিল । কাশ্মীরের বাড়তি সুযোগ সুবিধার জন্য ভারতীয় সংবিধানে ৩৭০ ধারা চালু ছিল, সেটি বন্ধ করে দেওয়া হয় পাশা পাশি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় জম্মু-কাশ্মীরকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভেঙে দেওয়া হবে । প্রথম টি চালু হয়ে গেছে এবার শুরু হয়ে গেল দ্বিতীয় পদক্ষেপ ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.