সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

নতুন মামলায় জড়ালেন দাদা সৌরভ গাঙ্গুলি

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ নতুন মামলায় জড়ালেন দাদা সৌরভ গাঙ্গুলি। মামলা হবে তাঁর পরিচালিত একটি খুব জনপ্রিয় শো  দাদাগিরির নামে। সম্প্রতি এই শোতে কিছু বিতর্কিত বিষয় নিয়ে পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। তার জেরেই এই মামালা।

শুধু কোলকাতাবাসী নয় আপামর বাঙালীর একটি প্রিয় বাংলা শো হল জি বাংলার নন-ফিকশান শো “দাদাগিরি”। এই অনুষ্ঠানে দাদা সৌরভ গাঙ্গুলিকে আমরা পাই একেবারে অন্য ভূমিকাতে এবং অন্য রূপে। সেখানে তিনি ক্যাপ্টেন নন একেবারে সবার দাদা। তাঁর পরিচালনায় এই দাদাগিরি এতো বছর ধরে সমান ভাবে জনপ্রিয় সবার মধ্যে। কিন্তু এবছরটা হয়ত সৌরভ গাঙ্গুলির নিজের ক্যারিয়ারের জন্য দারুণ বছর প্রমাণিত হলেও(ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট হন তিনি), তাঁর এই জনপ্রিয় বাঙালী শোর জন্য কিন্তু খুবই খারাপ বলে প্রমাণিত হয়েছে। এই শো এর নিয়ম হল সমাজের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষের জীবনের যুদ্ধ, তাঁদের জীবনের বিভিন্ন অধ্যায়, তাঁদের জীবন পরিবর্তনের গল্প নিয়ে হাজির হওয়া কিছু বিশেষ বিশেষ মানুষের দাদাগিরির গল্পকে সামনে তুলে ধরা। তেমনই গত সপ্তাহে একজন মহিলা এই শোতে উপস্থিত হয়েছিলেন তাঁর জীবনের একটি বিশেষ দিক নিয়ে, যার ভিত্তি ছিল অলৌকিক এবং ভূত। আর এই ঘটনাকে ঘিরেই শুরু হয় অশান্তি।

শো এর একজন নারী প্রতিযোগীর দাবী ছিল যে তাঁর পেশা হল ভূত খোঁজা। তিনি  নাকি বিভিন্ন সময় ভূতের অস্তিত্ব টের পান আর এই প্রতিযোগীর সমর্থনে কথা বলায় সৌরভ গাঙ্গুলিকে পড়তে হয় সমালোচনার মুখে। এই বিষয়টিকে বিজ্ঞান বিরোধী বলে এই শো এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ। এই বিভাগের একজন সদ্যস্যের মতে পর্ব সম্প্রচারনের সাতদিন আগেই মামালা দায়ের হয় দাদাগিরির বিরুদ্ধে এবং সম্প্রচারনের পর নতুন আরও কিছু বিষয় নথিভুক্ত হয়। তাঁদের মতে বিজ্ঞান বিরোধী কোনও রকম ভ্রান্ত ধারনা সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়ানো হল আইনত অপরাধ। এইটি ভারতীয় সংবিধানের ৫১ এ এইচ ধারাকে লঙ্ঘন করে। এছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়াতে এই বিষয়টি নিয়ে চরম চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। কারোর কারোর মতে শুধু শো এর টিআরপি বাড়াতেই নাকি এমন সব ঘটনা সাজানো হচ্ছে। এছাড়াও বৈজ্ঞানিক যুক্তি সম্পন্ন এক অংশ মানুষ এই শো এর নির্মাতা এবং নির্দেশকদের কাছে আবেদন জানিয়েছেন যে, যেহেতু ভারতবর্ষ বিজ্ঞানে এখনও অনেক পিছিয়ে এবং সাধারণ মানুষ খুব সহজেই কুসংস্কারের শিকার হয়ে পড়েন তাই কোনও ভাবেই যেন এমন কিছু টেলিভিশানে সম্প্রচারন না করা হয়।

যদিও এই বিষয়টি নিয়ে জি বাংলা কর্তিপক্ষ এবং দাদা সৌরভ গাঙ্গুলির কোনও রকম মতামত পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য
Loading...