সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

কাট মানি খাওয়ার অভিযোগ – এবার অভিযুক্ত মন্ত্রী রেজ্জাকের ছেলে

0

কাট মানি  নিয়ে বাজার এখন সরগরম ।  কোথাও না কোথাও খবর আসছে কাট মানি  নিয়ে ।  কোথাও ঘেরাও  হচ্ছে,  কোথাও মুচলেকা নিয়ে নেওয়া হচ্ছে,  আবার কোথাও বা বাড়িতে হামলা হচ্ছে । এবার প্রায় 3 লক্ষ টাকা কাট মানি নিয়ে অভিযুক্ত হলেন মন্ত্রী রেজ্জাকের পুত্র মোস্তাক আহমেদ ।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ,  জমি রেকর্ড করার জন্য দু’দফায় তিন লক্ষ টাকা নিয়েছেন তিনি । তার বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর করা হয়েছে । উল্লেখ্য ভাঙ্গড়ের  বৈরাম পুর মৌজায়  একটি জমি আলতু ও পান্না নামে দুই ব্যাক্তি  এল আর রেকর্ড করাতে না পেরে মোস্তাক আহমেদের দ্বারস্থ হন ।  সেই সময় মোস্তাক আহমেদ তাদের বলেছিলেন,  ওই জমির দাম অনেক ।  তাই ওই জমির এল আর রেকর্ড করাতে গেলে 5 লক্ষ টাকার মতো খরচ হবে । সেইমতো তারা দুজন  মন্ত্রীপুত্র মোস্তাককে দুই দফায় তিন লক্ষ টাকা দেন ।

কিন্তু মূল অভিযোগ,  টাকা পেয়েও এল আর রেকর্ড করে দেননি মোস্তাক আহমেদ । অবশেষে কাজ না হওয়ায় তারা মন্ত্রীপুত্র-এর  কাছে টাকা ফেরত চান । কিন্তু টাকা ফেরত না দিয়ে তাদের দিনের পর দিন ঘোরাতে থাকেন এবং নানান ভাবে হুমকিও দিতে থাকেন মন্ত্রিপুত্র ।  এরপর কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স থানায় মন্ত্রীর ছেলের  বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন আলতু ও পান্না ।  পুলিশ মোস্তাক আহমেদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে ।

এদিকে আরাবুলের ঘনিষ্ঠদের বিরুদ্ধে সোমবার রাতে হাতিশালায় মন্ত্রী পত্তের পুত্রের দলীয় কার্যালয় হামলা করার অভিযোগ উঠেছে । অবশ্য আরাবুল এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে মানুষ মোস্তাকের এই কাট মানি  নেওয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে তার অফিসে গিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছে ।

তৃণমূলের ঘনিষ্ঠ মহল এর খবর প্রকৃতপক্ষে একই দলের হলেও  রেজ্জাক মোল্লা এবং আরাবুল ইসলামের মধ্যকার সম্পর্ক অনেকটা আদায়-কাঁচকলায় । সে ক্ষেত্রে মন্ত্রীপুত্রর  বিরুদ্ধে কাট  মানির  অভিযোগ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ ।

মোস্তাক আহমেদের মতামত জানতে চাইলে তিনি বলেন,  “আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে ।  আসলে আমি এই এলাকায় হিডকোর  মাটি চুরি,  জলাভূমি বিক্রিসহ বিভিন্ন বেআইনি কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছি প্রশাসনকে জানিয়ে । সেই রাগেই ওরা আমার বদনাম করতে এই সব মিথ্যা অভিযোগ করছে ।” এছাড়া তিনি আরো বলেন,  ” এই দুই প্রোমোটারকে কয়েক বছর আগে সাউথ সিটি প্রজেক্টে তোলাবাজি করার অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করেছিল । সুতরাং এলাকার মানুষ জানেন ওরা কেমন মানুষ এবং কি ধরনের কাজ কর্মের সাথে যুক্ত” ।

মন্তব্য
Loading...