সাম্প্রদায়িক মানসিকতা কুরবানি হবে, গরু-ছাগল নয়: মীর

0

ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা মীর বলেন কুরবানির আসল উদ্দেশ্য গোরু ছাগল নয়, আসলে মন খারাপ উদ্দেশ্যেগুলো কুরবানি দেওয়া বা ত্যাগ করাই লক্ষ্য হওয়া উচিৎ এই পবিত্র উৎসবে। গত সোমবার সমস্ত বিশ্বজুড়ে মুসলিম পবিত্র ধর্ম উৎসব ঈদুল আযহা অনুষ্ঠিত হয়। লক্ষ লক্ষ মানুষ হজ্জে গেছেন। ইসলাম ধর্মে কুরবানীর ইতিহাস বেশ প্রাচীন।  আল কুরআনে হাবিল এবং কাবিলের উল্লেখ পাওয়া যায়। প্রথম মানুষ হাবিল যে আল্লাহর জন্য একটি পশু কুরবানী করেন। ইব্রাহীম (আ:) মহান আল্লাহ তা’আলার সন্তুষ্টির জন্য আরাফাতের ময়দানে নিজের ছেলের কুরবানী দেন।

ধর্মীয় বিধান মতে কুরবানি হচ্ছে নিজের ইগো ত্যাগ, সাম্প্রদায়িক মানসিকতা ত্যাগ। তবে ত্যাগের থেকে এখন ভোগের অংশ বেশী হওয়ায় অনেক বুদ্ধিজীবি কুরবানীর মূল বার্তাকে তুলে ধরার চেষ্টা করেন। তারই মধ্যে নতুন করে এক বার্তা দিলেন ভারতের জনপ্রিয় রেডিও জকি ও সঞ্চালক মীর।

মীর আফসার আলী সংক্ষিপ্ত নাম মীর। তিনি ১৯৭৫ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারিতে জন্মগ্রহণ করেন। ভারতীয় টিভি জি বাংলায় প্রচারিত রিয়েলিটি শো মীরাক্কেল এর মাধ্যমে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। মীর সমাজের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে বিভিন্ন সময় তার উপস্থাপনায় কথা বলে থাকেন।

বর্তমান প্রেক্ষাপটে মীরের এই কথাটি গুরুত্বপূর্ণ। যখন সমস্ত বিশ্ব অশান্ত তখন মীরের বার্তায় আসতে পারে আমাদের সমাজে শান্তি। আমরা পশু কুরবানী দেওয়ার সাথে সাথে নিজের মনের সাম্প্রদায়িকতা, মনের অন্ধকার, মনের কলুষতাকে কুরবানী দিতে পারলে বন্ধ হবে ধর্ষন, ঘুষ, দূর্নীতি।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...