পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গু ছড়ানোর পিছনে বাংলাদেশ’কে দায়ী করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: অন্যবারের তুলনায় এবার বর্ষার আগমন বেশ দেরিতেই হয়েছে। আর বর্ষা শুরু হওয়ার সাথে সাথেই শুরু হয়ে গিয়েছে ডেঙ্গুর প্রকোপ।

ডেঙ্গুর প্রভাব সবচেয়ে বেশী পরিমাণে পড়তে দেখা যাচ্ছে আমাদের প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশের ওপর। সেখানে ডেঙ্গু জ্ব‌র দিন দিন মহামারির আকার ধারণ করে চলেছে। মহানগরী কলকাতা অবশ্য এখনও পর্যন্ত ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে যথেষ্ট সক্ষম প্রমাণিত হয়েছে, তবে প্রভাব পড়েছে সীমান্তবর্তি উত্তর ২৪ পরগণা সহ পশ্চিমবঙ্গের বেশ ক’টি জেলায়। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে ডেঙ্গুর জীবাণু ছড়ানোর জন্য দায়ী করলেন বাংলাদেশকে।

সম্প্রতি সীমান্তবর্তী উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বারাসত মহাকুমার অন্তর্গত হাবড়া শহরে অজানা রোগে মৃত্যু হয় এক ব্যক্তির, পরে পরীক্ষা করে রোগের কারণ হিসাবে উথে আসে ডেঙ্গুর নাম। এছাড়াও বর্তমানে হাবড়া-অশোকনগর এলাকার আরও বহু রোগী জ্বরের কারণে ভর্তি রয়েছে হাসপাতালে। উত্তর ২৪ পরগণা ছাড়াও নদীয়া, মুর্শিদাবাদ এবং মালদার বেশ কিছু এলাকায় ডেঙ্গুর প্রভাব দেখা যাচ্ছে।

একারণে গত বৃহস্পতিবার সবুজ বাঁচাও নামক র‍্যালি শেষ করার পর নিজের দেওয়া ভাষণে বাংলাদেশকে দোষী সব্যস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, বাংলাদেশে যে কোনো সমস্যা হলে সেই প্রভাব পড়ে পশ্চিমবঙ্গেও। বাংলাদেশ থেকে ডেঙ্গুর জীবাণু নিয়ে এডিস মশা সীমান্ত পেরিয়ে পশ্চিমবঙ্গে আসছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গু রোগের জীবাণু ছড়ানোর পেছনে বাংলাদেশকেই দায়ী করে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কলকাতায় নজরুল মঞ্চের ওই অনুষ্ঠানে তিনি বলেন যে, বাংলাদেশে ডেঙ্গু মহামারী রূপ নিচ্ছে। এ বিষয়ে আমাদের বাড়তি সতর্কতা নিতে হবে, কেননা ওপার বাংলার মশা এপারে আসে, আবার এপার থেকে ওপারে যায়।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.