প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের সন্ধানে সিবিআই কলকাতার সব জায়গায় চিরুনি তল্লাশি শুরু করল

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ  প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের সন্ধান পাওয়ার জন্য পাগলের মত সমস্ত কলকাতা চষে বেড়াচ্ছে সিবিআই আধিকারিকরা । গতকাল বিশ্বকর্মা পুজোর দিন প্রায় সারারাত ধরে হন্যে হয়ে খুঁজছে রাজীব কুমার কে । তবুও রাজীব কুমার এর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি । আজ সকাল থেকেই শুরু হয়েছে চিরুনি তল্লাশি । সিবিআই-এর বারোজনের একটি দল কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি শুরু করেছে সকাল থেকেই ।শহর জুড়ে হন্যে হয়ে রাজীব কুমারকে খুঁজছে সিবিআই। জানা গিয়েছে, রাজীব কুমারকে খুঁজতে ইতিমধ্যেই রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছে সিবিআই-এর পাঁচটি দল। আজ বৃহস্পতিবার  আলিপুরের আইপিএস মেসে গিয়ে হাজির হয় সিবিআই-এর চার সদস্যের একটি দল । সেখানে গিয়ে বেশ কিছুক্ষণ তল্লাশি চালান তাঁরা ।  তল্লাশি করা থেকে বাদ যায়নি রাজীব কুমারের বাড়িও ।

আজ দুপুর বেলায় আচমকা  বাইপাসের ধারের একটি হোটেলেও নাটকীয় ভাবে  তল্লাশি চালাতে হাজির হয় সিবিআই আধিকারিকরা ।তাঁরা হোটেলের পিছনের দরজা দিয়ে প্রবেশ করে হোটেলের রান্না ঘরে । কেন সি বি আই-এর আধিকারিকরা এভাবে হানা দিল তাই নিয়ে চলছে এখন জোর জল্পনা ।

সুত্রের খবর অনুযায়ী, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টো নাগাদ দু’জন ডিএসপি র‍্যাঙ্কের অফিসারসহ  সিবিআই-এর চার সদস্যের একটি দল পৌঁছয় আলিপুরের আইপিএস মেসে গিয়ে মেসের ভিতরে ঢুকে প্রতিটা দরজায় টোকা মেরে পরীক্ষা করেন । ভাল ভাবে সেখানে  তল্লাশি চালানোর পর সেখান থেকে বেরিয়ে যান সিবিআই আধিকারিকরা । সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে আধিকারিকরা এড়িয়ে গেছেন । এর পর ফের  দুপুর দেড়টা নাগাদ সিবিআই-এর একটি দল  রাজীব কুমারের বাড়ি ৩৪নং পার্ক স্ট্রিটে হানা দেয় । সেখানে গিয়ে তাঁরা রাজীব কুমারের  বাড়ির ভিতরে চলে যান এবং  রাজীব কুমারের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকেন । বেশ কিছুক্ষণ পরে খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে সেখানে ছুটে আসে পুলিশ । তারপর প্রায় ৪৫ মিনিট পর সিবিআই-এর গাড়িকে কার্যত কর্ডন করে বের করে নিয়ে যাওয়া হয় । বর্তমানে রাজীব কুমারের সেই বাড়িটিকে ঘিরে রেখেছে পুলিশ ।  সাদা পোশাকের পুলিসহ কার্যত ঘিরে ফেলে টহল দিচ্ছে ।

সেখানে সন্ধান না পেয়ে  দুপুর তিনটে নাগাদ বাইপাসের ধারের একটি পাঁচতারা হোটেলে গিয়ে পৌঁছন সিবিআই-এর চার সদস্যের একটি দল। সেখানে গিয়ে তল্লাশি চালান তাঁরা। সিবিআই সূত্রে জানানো হয়েছে, এই হোটেলে লুকিয়ে থাকতে পারেন রাজীব কুমার। তাই তল্লাশি চালাতে সেখানে গিয়েছেন তাঁরা ।

রাজীব কুমারের ফোন বন্ধ থাকায় এ দিনই আবার ডিজিকে মেল করে সিবিআই-এর তরফে জিজ্ঞাসা করা হয়েছে, রাজীব কুমারের বর্তমান চালু নম্বরটি কী? কোন নম্বরে ফোন করলে পাওয়া যাবে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারকে? মেল-এ উল্লেখ করা হয়েছে, আদালতের নির্দেশের পর থেকে তদন্তের স্বার্থে রাজীব কুমারের সঙ্গে যোগাযোগ করা প্রয়োজন। তাই যেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রাজীব কুমারের ফোন নম্বর জানিয়ে এই মেল-এর উত্তর দেওয়া হয়। সিবিআই এর সাথে রাজীব কুমার এর টানাপোড়ন অনেকদিন ধরেই চলছে, কিন্তু গত দুইদিন ধরে সিবিআই যেভাবে রাজীব কুমার কে ধরার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে এমনটা আগে কখনো দেখা যায়নি । তাছাড়া বারাসত আদালতে আগাম জামিনের আবেদন করলেও রাজিব কুমারের সেই আবেদন গৃহীত হয়নি । যার ফলে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার বেশ বিপাকে আসেন এ কথা বলা যায় ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য