বাংলাদেশে মধ্যযুগীয় কায়দায় যৌতুকের জন্য শিকলে বেধে নববধুর গোপানাঙ্গে মরিচের গুড়া দিয়ে নির্যাতন

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলায় এক নববধুকে শিকলে বেধে গোপনাঙ্গে মরিচের গুড়া দিয়ে নির্যাতন করা হয়। গত বৃহস্পতিবার এই ঘটনার পর শুক্রবার তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসা দেয়া হয়। যৌতুকের দাবিতে এ অত্যাচার করা হয় বলে জানা যায়।

প্রসঙ্গত চার মাস আগে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার সিংরাইল ইউনিয়নের মো: মিজানুরের সাথে বিয়ে লাইলী আক্তারের। বিয়ের কয়েক দিন যেতে না যেতেই মোটা অংকের যৌতুকের টাকার জন্য লাইলীর ওপর অত্যাচার-নির্যাতন শুরু হয়। বাবা হারা লাইলীর সুখের জন্য স্বামী মিজানের হাতে তিন দফায় এক লাখ টাকা তুলে দেন লাইলীর দরিদ্র ভাই আলামিন।

বৃহস্পতিবার রাতে আবারও বাবার বাড়ি থেকে চার লাখ টাকা এনে দেয়ার কথা বলে মিজান। তর্কাতর্কির একপর্যায়ে মিজান ও তার মা মিলে লাইলীকে পিটিয়ে আহত করে। একপর্যায়ে শিকলে বেঁধে তার গোপানাঙ্গে মরিচের গুঁড়া দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয়। লাইলী আক্তারের বড় ভাই ঢাকায় ফেরি করে মাছ বিক্রি করেন। পরিবারের পক্ষ থেকে জানা যায় এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে জানা যায় গৃহবধূর ভাই আলামিন বাদী হয়ে শনিবার সকালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...