সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

breaking news: ইরাকে ফের মার্কিন হামলা, উতপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি, মৃতের সংখ্যা ৬

শুক্রবার ভোর রাতে ইরাকের বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে মার্কিন রকেট হামলায় মারা জান ইরানের কুদস সেনাপ্রধান কাসেম সোলেমানি । সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের শনিবার ভোররাতে মার্কিন সেনাবাহিনী আঘাত হানল একটি ইরানি কনভয়ের উপর । সূত্রের খবর, দ্বিতীয় হামলায় এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।যদিও এই ঘটনায় আমেরিকার তরফে এখনও কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি। কাসেম সোলামানির শেষকৃত্যে যাওয়ার সময় কনভয়ের উপর হামলায় ঠিক কতজন মারা গিয়েছেন সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত কোনও তথ্য দিতে পারেনি ইরাকও।

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ শুক্রবার ভোররাতে মার্কিন এয়ার স্ট্রাইক হামলার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ফের ইরানি কনভয়ে হামলা চালাল আমেরিকার সেনা । জানা গেছে এই হামলার মুল উদ্দেশ্য ছিল ইরাকে অবস্থানরত  ইরানের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হাশদ আল-শাবিকে আক্রমণ করা । ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দ্বিতীয়বার মার্কিন হামলায় শঙ্কিত হয়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক মহল ।

শুক্রবার ভোর রাতে ইরাকের বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে মার্কিন রকেট হামলায় মারা জান ইরানের কুদস সেনাপ্রধান কাসেম সোলেমানি । সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের শনিবার ভোররাতে মার্কিন সেনাবাহিনী আঘাত হানল একটি ইরানি কনভয়ের উপর । সূত্রের খবর, দ্বিতীয় হামলায় এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।যদিও এই ঘটনায় আমেরিকার তরফে এখনও কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি। কাসেম সোলামানির শেষকৃত্যে যাওয়ার সময় কনভয়ের উপর হামলায় ঠিক কতজন মারা গিয়েছেন সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত কোনও তথ্য দিতে পারেনি ইরাকও।

ইরাকে অবস্থান করছে ইরানি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হাশদ আল শাবি । মার্কিন রকেট হামলায় ইরানের কুদস সেনাপ্রধান কাসেম সোলেমানির মৃত্যুর পর তাঁর শেষকৃত্যে তাঁরা পৌঁছানোর আগেই আমেরিকা হামলা চালায় ।  আমেরিকার তরফে বিবৃতি পাওয়া না গেলেও ইরাকের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম  এই দ্বিতীয় হামলার জন্য মার্কিন সেনাবাহিনীকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে । সন্দেহ করা হচ্ছে এবার  ড্রোন হামলাই করেছে মার্কিন সেনাবাহিনী।

গত রবিবার থেকেই ইরাকে মার্কিন বিরোধী আন্দোলন চলছিল । অবশ্য তিন দিনের মধ্যে সেই আন্দোলন স্তিমিত হয়ে যায় । কিন্তু শুক্রবার ভোররাতে মার্কিন হামলার পর পরিস্থিতি আবার বিগড়ে যায় । আজ শনিবার ভোররাতে ফের মার্কিন হামলায় ইরাকের মানুষ বেশ আতংকিত হয়ে পড়েছে । নিরাপত্তার কারনে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে বাগদাদ। মোতায়েন হয়েছে প্রচুর সেনা। এদিকে আন্তর্জাতিক মহল আশঙ্কিত হয়ে পড়ছেন আগামী দিনে এই ঘটনা ভয়াবহ যুদ্ধের দিকে মোড় নেবার কথা ভেবে ।

মন্তব্য
Loading...