সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

Breaking News: সেপ্টেম্বরেও কড়া লকডাউনের পথে হাঁটতে চলেছে রাজ্য

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ গোটা দেশের পাশাপাশি রাজ্যেও উল্লেখযোগ্যভাবে করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে । আগস্ট মাসে কড়া লকডাউনের দাওয়াই দিয়েও খুব বেশি করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব হয়নি । বুধবার সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন আগস্ট মাসের মত সেপ্টেম্বর মাসেও রাজ্যে চলবে লকডাউন ।

বর্তমানে বাংলার প্রায় প্রতিটি জেলায় করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে গেছে । বুধবার নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, অগস্ট মাসে যে ভাবে নির্দিষ্ট দিনে পূর্ণ লকডাউন হয়েছে, তেমনই চলবে সেপ্টেম্বরেও। তবে এদিন আপাতত তিনটি দিনের কথা ঘোষণা করেছেন তিনি । তিনি জানান,  সেপ্টেম্বরের ৭, ১১ ও ১২ তারিখ বাংলায় পূর্ণ লকডাউন থাকবে। বাকি দিন রাজ্য সরকার পরে ঘোষণা করবে ।

বুধবার নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান,  নিয়ম মেনে যদি মেট্রো রেল ও লোকাল ট্রেন চলে তাহলে রাজ্যের কোনও সমস্যা নেই। তাঁর কথায়, “সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং মেনে মেট্রো রেল এবং লোকাল ট্রেন চলতে পারে ১ সেপ্টেম্বর থেকে। তাতে কোনও অসুবিধা নেই। কিন্তু এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকার বা রেল যদি রাজ্যের সঙ্গে একবার কথা বলে নেয় তাহলে ভাল হয়।”

আগস্ট মাসেও আনলক ৩.০ শেষ হতে চলেছে । সেপ্টেম্বর মাস থেকে নতুন পর্যায়ে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড়ের চিন্তা করছে কেন্দ্রীয় সরকার । দেশের অর্থনীতির হাল ফিরিয়ে আনার জন্য প্রেক্ষাগৃহ, পার্ক, জিম, রেস্তরাঁ প্রভৃতি খুলে দেবার পাশাপাশি  লোকাল এবং মেট্রো ট্রেন চালু করার চিন্তা ভাবনা করছে । এমনকি গত দু’দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, সেপ্টেম্বরের গোড়া থেকেই দেশের বিভিন্ন শহরে মেট্রো পরিষেবা চালু হতে পারে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও মেট্রো চালু করার দাবি জানিয়েছেন।

তবে দেশের পাশাপাশি রাজ্য সরকারও এই মুহূর্তে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেবার পক্ষপাতি নন । জুন মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট ট্র্যাম্প স্কুল কলেজ খুলে দেবার কথা ঘোষণা করার পর প্রায় এক লক্ষ স্কুল পড়ুয়া করোনায় আক্রান্ত হয় । মারা গেছে প্রায় ২৫ হাজার । ফলে এই মুহূর্তে স্কুল কলেজ খুলে দেওয়া মানে স্কুল পড়ুয়াদের নিয়ে বেশ বড় ঝুঁকির প্রশ্ন থেকে যাবে । এদিন মুখ্যমন্ত্রীও  স্পষ্ট করে বলেন, ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্যে সমস্ত স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে।”

জুলাই মাসের শেষেই রাজ্য সরকার জানিয়েছিল, সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে রাজ্য সরকার সপ্তাহে দু’দিন পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটবে। সেই মতো প্রাথমিক ভাবে দিন ঘোষণার পর অন্তত পাঁচ বার তাতে বদল এনেছিল নবান্ন। কখনও এক দিনের বদলে আরএক দিন করা হয়েছিল, কখনও আবার সংশ্লিষ্ট দিনটিই বাতিল করে দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছিল। অনেকের মতে, সেপ্টেম্বরে যাতে সেই ধরনের কোনও জটিলতা না হয় তাই শুরুতে তিনটি তারিখ ঘোষণা করল রাজ্য সরকার।

মন্তব্য
Loading...